একুশে একটাই খেলা হবে, আমি থাকব গোলরক্ষক - মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

একুশে একটাই খেলা হবে, আমি থাকব গোলরক্ষক - মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

ভোটমুখী বঙ্গে এই মুহূর্তে সুপার-ডুপার হিট শব্দবন্ধ 'খেলা হবে'। স্লোগান, ডিজে, মিটিং-মিছিল হোক কিংবা জনপ্রতিনিধি থেকে জনগণের মুখে মুখে ঘুরছে খেলা হবে স্লোগান। এবার সেই তালিকায় জুড়ে গেল খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামও। দক্ষিণ কলকাতায় ভাষা দিবসের অনুষ্ঠানের মঞ্চ থেকে ভোটের আঁচ বাড়িয়ে তৃণমূল সুপ্রিমোর হুঁঙ্কার ''একুশে একটাই খেলা হবে, আমি থাকব গোলরক্ষক।

দেখি কে জেতে। ভোটের পর দেখা যাবে কে জেতে, কে হারে।'' এদিনই কয়লাকাণ্ডে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী ও শ্যালিকাকে নোটিস দিয়েছে সিবিআই। সেই প্রসঙ্গ নিয়ে মুখ না খুললেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ইঙ্গতপূর্ণ মন্তব্য, 'জেলের ভয় আমাদের দেখাবেন না। যতক্ষণ দেহে প্রাণ আছে, মাথা নত করব না। জেলে থাকলেও বঙ্গবন্ধুর মতো ডাক দেব।

এদিকে 'খেলা হবে' স্লোগান নতুন করে ব্যবহার করলেন ভাঙড়ের তৃণমূল (TMC) নেতা, আরাবুল ঘনিষ্ঠ মোদাস্সের হোসেন। শনিবার ভাঙড়ে (Bhangar)কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ঢুকতে দেখে তাঁর সরস মন্তব্য, 'বাহিনী থাকবে বুথে, ক্যাম্পে। আর মাঠে খেলবে আমাদের ছেলেরা।' বোঝাই গেল, তিনি কী বলতে চাইলেন। আপাতত ভাঙড়ের ভোগালি ২ নং পঞ্চায়েত সমিতির সদস্যের এই মন্তব্য ঘিরে সরগরম রাজ্য রাজনীতির অন্দরমহল।

রাজ্যে ভোট ঘোষণার আগেই এসে পড়েছে কেন্দ্রীয় বাহিনী (Central Force)। শনিবার বিভিন্ন জেলার পাশাপাশি দক্ষিণ ২৪ পরগনার অন্যতম উত্তেজনাপ্রবণ এলাকা ভাঙড়ে শুরু হয়েছে বাহিনীর রুটমার্চ। এসব দেখেই কর্মী, সমর্থকদের তাতিয়ে তুলতে মাঠে নেমে ভোকাল টনিক দিতে শুরু করল তৃণমূল।