অল্প পুঁজিতে লাভজনক ব্যবসা শুরু করলে আয় হবে মোটা টাকা

অল্প পুঁজিতে লাভজনক ব্যবসা শুরু করলে আয় হবে মোটা টাকা

আজবাংলা  আমরা অনেকেই জানি না আমাদের কি ব্যবসা করা উচিত!আমরা পরামর্শ করি আমাদের আশেপাশের নিকটজনদের সাথে অথচ পরামর্শ নেয়া দরকার কোন সফল উদ্যোক্তার।একটা ব্যাতিক্রমি ব্যবসায় যত দ্রুত উন্নতি সম্ভব গতানুগতিক ব্যবসায় এখন এটা একদমই অসম্ভব।

দেশজুড়ে চলা করোনা সংকটে বেকার লক্ষ লক্ষ মানুষ। বহু মানুষ প্রতিদিন কাজ করেও মিলছে কম বেতন। অনেকের আবার চাকরিই চলে গিয়েছে। তবে এই কঠিন সংকটের সময় আপনি সহজেউ একটা ব্যবসা করতে পারেন এবং ভালো উপার্জন করতে পারেন।

আপনাকে এমন একটি ব্যবসার কথা বলা হচ্ছে, যেখানে আপনি প্রতি মাসে মাত্র ৫ হাজার টাকা খরচ করে মোটা টাকা আয় করতে পারবেন।এই সুময় ছোট থেকে বড় স্তরে মাশরুমের চাষ করা হয়। তাই এখন আপনিও প্রতি মাসে মাশরুম চাষ করে মোটা টাকা ইনকাম করতে পারেন। এর জন্য আপনার খুব বেশি টাকা বা জায়গার দরকার হবে না।

আপনি কেবল একটি ঘর থেকে এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন। এই ব্যবসায় নামতে আপনাকে কেবল ৫ থেকে ৬ হাজার টাকা ব্যয় করতে হবে। একটি ৩০ থেকে ৪০ গজের জায়গায় কম্পোজাট (মাশরুম উৎপাদনের মাটি ও বীজের মিশ্রণ) রাখতে হবে।আপনি বাজারে সহজেই এই সংমিশ্রণটি পেয়ে যাবেন।

এছাড়াও আপনি প্যাকেটজাত কম্পোজিটও কিনতে পারেন। এই প্যাকেটগুলি ছায়ায় বা ঘরে রাখতে হবে। এর পরে, মাশরুমগুলি ২০ থেকে ২৫ দিনের মধ্যে বড় হতে শুরু করে।এগুলি বড় হয়ে গেলে আপনি কোনও অনলাইন বিপণীর সঙ্গে যুক্ত হয়ে সহজেই এগুলি বিক্রি করতে পারবেন।

অথবা বাজারে নিয়েও বিক্রি করা যেতে পারে।এক কেজি মাশরুম মোটামুটি ১০০ থেকে ১৫০ টাকায় বিক্রি হয়।সুতরাং এইভাবে আপনি কম ব্যয়ে আরও বেশি লাভ অর্জন করতে পারেন। এছাড়া অনেকগুলি প্রতিষ্ঠান এই ধরণের কৃষিকাজ সম্পর্কে প্রশিক্ষণও দেয়, সেখান থেকে শিক্ষা নিয়ে আপনি এব্যবসা করতেই পারেন।

চাষ করার পদ্ধতি জেনে নিন 

ধানের খড় ভিজিয়ে রাখা হয় এবং একদিন পর এটি পচে যায়, এতে যোগ হয় ডিএপি, ইউরিয়া, পটাশ, গমের ভুসি, জিপসাম এবং কার্বোফুডোরান। প্রায় দেড় মাস পর কম্পোস্ট তৈরি হয়ে যায় ৷ এরপর ঘুঁটে এবং মাটি সমানভাবে মিশিয়ে, প্রায় দেড় ইঞ্চি পুরু স্তর বিছিয়ে দেওয়া হয় ৷

তার উপরে কম্পোস্টের ২-৩ ইঞ্চির মোটা স্তর বিছিয়ে দেওয়া হয় ৷ মাটি নরম রাখার জন্য দিনে ২ থেকে ৩ বার স্প্রে করতে হবে ৷ এই ভাবেই মাশরুম চাষ করা হয় ৷ বড় স্তরে এই চাষ করতে চাইলে সঠিক প্রশিক্ষণ নিয়ে নেওয়া ভাল ৷ প্রতি বর্গ মিটারে ১০ কিলোগ্রাম মাশরুম চাষ করা যাবে সহজেই ৷