কোটি কোটি টাকা হাতানোর অভিযোগ ভুয়ো পুলিশ ইমরানের বিরুদ্ধে

কোটি কোটি টাকা হাতানোর অভিযোগ ভুয়ো পুলিশ ইমরানের বিরুদ্ধে

ফের ভুয়ো পুলিশের খোঁজ মিলল রাজ্যে । পুলিশ ও সিভিক ভলান্টিয়ারের চাকরি পাইয়ে দেওয়ার নাম করে একাধিক যুবকের কাছ থেকে মোটা টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে কাঁথির এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। পুলিশের ভুয়ো আই কার্ড দেখাত সে। ছবিও তুলত তৃণমূলের প্রভাবশালী নেতাদের সঙ্গে। অভিযুক্তের নাম ইমরান খান। সে নিজেকে পুলিশের সাব-ইন্সপেক্টরের পরিচয় দিত।

একাধিক চাকরিপ্রার্থী যুবক ইমরানের পাতা ফাঁদে পা দিয়েছেন। তাঁরা আই কার্ড দেখে, প্রভাবশালী নেতাদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ ছবি দেখে বিশ্বাস করেছিলেন। এর ওর কাছ থেকে ধার দেনা করে টাকা জোগাড় করে তুলে দিয়েছিলেন ইমরানের হাতে। কিন্তু দিনের পর দিন কেটে গেলেও মেলেনি চাকরি। এই প্রতারকের নামে কাঁথি থানা ও জেলা পুলিশ আধিকারিকের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছেন প্রতারিত যুবকরা।

সব মিলিয়ে কোটি কোটি টাকা প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে। কাঁথি থানার রায়পুর গ্রামের এক যুবক জানিয়েছেন, বছর খানেক আগে সিভিক ভলান্টিয়ারের কাজ পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি তাঁকে দিয়েছিল ইমরান খান। কিন্তু টাকা পাওয়ার পর থেকেই নানা টালবাহানায় যুবককে ঘোরাতে থাকে সে। কিছুতেই চাকরি হয় না। অবশেষে প্রতারিতরা সকলে জড়ো হয়ে থানায় গিয়েছেন। অভিযোগ পেয়ে নড়েচড়ে বসেছে পুলিশও। অন্যদিকে এলাকার তৃণমূল নেতাদের সঙ্গে এই প্রতারকের ছবি রয়েছে, যা ঘসফুল শিবিরকেও বেশ অস্বস্তিতে ফেলেছে।