মুর্শিদাবাদে জমি সংক্রান্ত বিবাদের জেরে দুস্কৃতীদের হাতে আক্রান্ত পঞ্চায়েত প্রধান

মুর্শিদাবাদে জমি সংক্রান্ত বিবাদের জেরে দুস্কৃতীদের হাতে আক্রান্ত পঞ্চায়েত প্রধান

 জমি সংক্রান্ত বিবাদের জেরে, গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানকে মারধরের অভিযোগ উঠল দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। বুধবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদ (Murshidabad) জেলার বহরমপুর (Berhampore) থানার অন্তর্গত লক্ষনপুর মাঠে। গোয়ালজান নিয়ালিশপাড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান সেখ সাদেক আলি তার উপর দুস্কৃতীরা অতর্কিতভাবে হামলা চালায় বলে অভিযোগ।

বর্তমানে আহত অবস্থায় চিকিত্‍সাধীন মুর্শিদাবাদ (Murshidabad) মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। স্হানীয় বাসিন্দারা সুত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার সকালে বহরমপুর (Berhampore) বিডিও (BDO) অফিসে মিটিংয়ে যোগ দিতে আসার সময় তাকে আয়নাল হক সহ তার অনুগামীরা, তাকে ডেকে নিয়ে গিয়ে তার ওপর এ হামলা চালায় বলে অভিযোগ।

অভিযোগ উঠেছে, ঠিকাদার তিনি কাজ করছেন একটি রাস্তার সেই কাজ নিয়ে বিবাদ তৈরি হয়। সেই বিবাদের জেরে, গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান সেখ সাদেক আলি তার উপরে অতর্কিত হামলা চালায় বলে অভিযোগ। গুরুতর জখম অবস্থায় সেখ সাদেক আলি কে আহত অবস্থায় বহরমপুর (Berhampore) মুর্শিদাবাদ (Murshidabad) মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে চিকিত্‍সার জন্য।

অন্যদিকে, পঞ্চায়েত প্রধান কে লক্ষ্য করে গুলি করা হয়, যদিও তার গুলি লক্ষ্য ভ্রষ্ট হয় বলে অভিযোগ। এই ঘটনায় তীব্র উত্তেজনা তৈরি হয় বহরমপুরের লক্ষনপুর মাঠে । ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বহরমপুর থানার পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। আহত অবস্থায় চিকিত্‍সাধীন অবস্থায় সেখ সাদেক আলি জানান, জমি নিয়ে বিবাদের জেরে আমার উপর এই হামলা চালিয়েছে দুস্কৃতীরা।

আমি বহরমপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তবে তৃণমূল দলের উচ্চ পদস্থ নেতৃত্বকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। আমি চাই এই ঘটনার পুনাঙ্গ তদন্ত করা হোক, দোষীদের চিহ্নিত করে উপযুক্ত শাস্তি দেওয়া হোক। মুর্শিদাবাদ জেলা পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ প্রশাসন । তবে এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাওকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। কি কারণে এই হামলা চালানো হয়েছে তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে।