পাকিস্তানের ক্রিকেট কে শেষ করার ক্ষমতা আছে ভারতের , দাবি রামিজ রাজার

পাকিস্তানের ক্রিকেট কে শেষ করার ক্ষমতা আছে ভারতের , দাবি রামিজ রাজার

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছেন রামিজ রাজা। নিউজিল্যান্ড, ইংল্যান্ডের সফর বাতিল থেকে শুরু করে দেশের ক্রিকেটের পরিকাঠামো নতুন করে গড়ে তোলা, প্রচুর কাজ রয়েছে নতুন চেয়ারম্যান এর সামনে। ধারাভাষ্যকার হিসেবে খুব জনপ্রিয় ছিলেন রাজা। ভারতে বিভিন্ন টুর্নামেন্টে কাজ করেছেন।

একাধিকবার আইপিএলেও কাজ করার অভিজ্ঞতা আছে। তাই ভারতীয় ক্রিকেটের সম্পর্কে তার জ্ঞান যথেষ্ট। এখনও পর্যন্ত কোনো ফরম্যাটের বিশ্বকাপে ভারতকে হারাতে পারেনি পাকিস্তান। সামনে আরও একটি বিশ্বকাপ আসছে। যথারীতি এই আসরেও ভারতকে হারানের স্বপ্ন দেখছে পাকিস্তান দল। বাবর আজমদের জন্য সুখবর হল, এবারের বিশ্বকাপে ভারতকে হারাতে পারলে মোটা অঙ্কের বিনিয়োগ পেতে পারে পাকিস্তান।

এক বিনিয়োগকারী নাকি তাদের 'ব্ল্যাঙ্ক চেক' দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন পিসিবি চেয়ারম্যান রমিজ রাজা। বৃহস্পতিবার আন্তঃপ্রাদেশিক সমন্বয় (আইপিসি) এর সিনেট স্থায়ী কমিটির সঙ্গে সভায় রমিজ রাজা বলেন, 'পিসিবির ৫০ শতাংশ খরচ চলে আইসিসির অর্থায়ন থেকে। আর আইসিসির ৯০ শতাংশ অর্থায়ন আসে ভারত থেকে।

আমি ভয় পাচ্ছি, ভারত যদি আইসিসিকে অর্থায়ন বন্ধ করে দেয়, তাহলে পিসিবি মুখ থুবড়ে পড়তে পারে। কারণ, আইসিসিকে পিসিবি অর্থায়ন দেয় শূন্য শতাংশ। পাকিস্তান ক্রিকেটকে শক্তিশালী করতে আমি দৃঢ়প্রতিজ্ঞ।' এরপরেই দেশের ক্রিকেটের জন্য সুসংবাদটা দেন পিসিবি প্রধান, 'এক বড় বিনিয়োগকারী আমাকে বলেছেন, আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তান যদি ভারতকে হারাতে পারে, তাহলে পিসিবির জন্য একটি ব্ল্যাঙ্ক চেক প্রস্তুত আছে।

আমাদের ক্রিকেট যদি আর্থিকভাবে শক্তিশালী হয়, তাহলে কেউ আমাদের ব্যবহার করতে পারবে না। ইংল্যান্ড ও নিউ জিল্যান্ডের মতো দল সফর বাতিল করতে পারবে না। সেরা ক্রিকেট দল এবং সেরা ক্রিকেট অর্থনীতি দুটিই বড় চ্যালেঞ্জ।' প্রধানমন্ত্রী এবং পাকিস্তানের একমাত্র একদিনের বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক ইমরান খান তার পুরো সমর্থন দিয়েছেন রামিজকে।

দল হিসেবে পাকিস্তান যদি আসন্ন টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হতে পারে, তাহলে একাধিক দেশ পাকিস্তানে ক্রিকেট খেলতে যাবে বলে জানিয়েছেন নতুন চেয়ারম্যান। কিন্তু তার আগে চ্যাম্পিয়ন হয়ে দাঁড়াতে হবে। ক্রিকেটারদের বিভিন্ন ভাবে মোটিভেট করার কাজ করছেন তিনি।