বাংলাদেশকে হারিয়ে এশিয়ান কাপের দিকে আরেক ধাপ এগোল ভারত

বাংলাদেশকে হারিয়ে এশিয়ান কাপের দিকে আরেক ধাপ এগোল ভারত

সুনীল ছেত্রীর পায়েই শাপমুক্তি হল ইগর স্টিমাচের (Igar Stimac)। বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে বাংলাদেশকে ২-০ গোলে হারিয়ে দিল ভারত। বিশ্বকাপে (Fifa World Cup) খেলার আশা অনেক আগেই শেষ হয়েছিল। তবে সোমবারের জয়ের ফলে এশিয়ান কাপে খেলার সম্ভাবনা উজ্বল হল ভারতের। জয়ের ফলে নিজেদের গ্রুপে তৃতীয় স্থানে উঠে এল ভারত। গ্রুপের প্রথম তিনে শেষ করতে পারলে সরাসরি এশিয়ান কাপে খেলার সুযোগ পাবে ভারত।

আগের ম্যাচে কাতারের (Qutar) বিরুদ্ধে ভাল লড়াই করেও হারতে হয়েছিল। তাই বাংলাদেশের বিরুদ্ধে এই ম্যাচ ভারতের জন্য অনেকটা 'মাস্ট উইন' ম্যাচের মতোই ছিল। তাছাড়া প্রথম পর্বের ম্যাচে যেভাবে যুবভারতীতে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ড্র করতে হয়েছিল। সেটাও এদিন মাথায় ছিল ভারতীয় দলের। লক্ষ্য যেহেতু তিন পয়েন্ট অর্জন করাই ছিল, তাই বাংলাদেশের বিরুদ্ধে দোহায় আক্রমণাত্মক দল সাজিয়েছিলেন কোচ স্টিমাচ।

খেলার শুরু থেকে আক্রমণাত্মক মেজাজেই দেখা জাচ্ছিল ভারতীয় দলকে (Indian Football Team)। তবে, বাংলাদেশের রক্ষণ ভাঙতে এদিনও বেশ বেগ পেতে হল ভারতীয় দলকে। ম্যাচের বেশিরভাগ সময় বল নিজেদের দখলে রাখলেও প্রথমার্ধে সেভাবে গোলমুখ খুলতে পারছিল না টিম ইন্ডিয়া। সহজ সুযোগ পেয়েও নষ্ট করছিলেন ভারতীয় ফরওয়ার্ডরা। মনবীর থেকে চিঙ্গেলসানা সহজ সুযোগ নষ্ট করেছিলেন একাধিক তারকা। প্রথমার্ধে একাধিক সুযোগ নষ্ট করলেন সুনীল ছেত্রী (Sunil Chhetri) নিজেও।

কিন্তু ম্যাচের বয়স ৭০ মিনিট পেরতেই স্বমেজাজে ধরা দিলেন টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ক। দুটি বিশ্বমানের ফিনিশ। প্রথমটি আশিকের ক্রস থেকে কঠিন অ্যাঙ্গেল থেকে। দ্বিতীয়টি বক্সের ভিতর থেকে গোলকিপারকে চিপ করে। সুনীলের এই জোড়া গোলই টানা ১৩ ম্যাচ পর জয় এনে দিল ভারতকে। আন্তর্জাতিক ফুটবলে ৭৪টি গোল করে ফের মেসির উপরে চলে গেলেন ভারত অধিনায়ক। এই জয়ের ফলে ভারত পৌঁছে গেল ৬ পয়েন্টে। আফগানিস্তানের রয়েছে ৫ পয়েন্ট। আগামী ১৫ জুন বাছাই পর্বের শেষ ম্যাচে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে খেলবে ভারত। সেই ম্যাচে ড্র করলেই সরাসরি এশিয়ান কাপে খেলার সুযোগ পেয়ে যাবে ইগর স্টিমাচের দল।