আদিবাসী নাবালিকাকে গণধর্ষণের অভিযোগে ধৃত ৪

আদিবাসী নাবালিকাকে গণধর্ষণের অভিযোগে ধৃত ৪

ফের বীরভূমে গণধর্ষণের শিকার আদিবাসী নাবালিকা! এবার অশালীন ভিডিয়ো নিয়ে ব্ল্যাকমেল করে এক আদিবাসী নাবালিকাকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে । একবার নয়, একাধিকবার ওই আদিবাসী নাবালিকাকে গণধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ। বোলপুর থানা এলাকায় এই ঘটনায় ইতিমধ্যে পুলিশ অভিযুক্ত কয়েকজনকে গ্রেফতার করেছে।  

পুলিশ জানায়, বোলপুরের এক দশম শ্রেণীর ছাত্রীকে ৫ জন মিলে গণধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ। ঘটনাটি মাস ছয়েক আগে ঘটলেও শনিবারই বোলপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন নির্যাতিতার মা। তাঁর অভিযোগ পেয়েই বোলপুর থানার পুলিশ ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে৷ ধৃতরা সকলে স্থানীয় বাসিন্দা। আরও এক অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে।

গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে জানিয়ে বোলপুরের SDPO অভিষেক রায় বলেন, "একটি ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে। তার ভিত্তিতে অভিযোগ দায়ের হয়েছে। এক নাবালিকাকে যৌন নির্যাতন করার অভিযোগ দায়ের হয়েছে৷ জানা যাচ্ছে, ঘটনাটি প্রায় ৬ মাস আগের। নাবালিকার পরিবারের অভিযোগ পাওয়ার পরই অভিযুক্ত ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

আরেকজনের খোঁজ চলছে। শীঘ্রই সে ধরা পড়বে।"  স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বোলপুর থানা এলাকার বাসিন্দা ওই নাবালিকা স্থানীয় স্কুলের দশম শ্রেণীর ছাত্রী। নাবালিকাটির সঙ্গে তার এক বন্ধুর ঘনিষ্ঠ দৃশ্যর ভিডিয়ো দেখিয়েই ব্ল্যাকমেল করে এলাকার ৫ যুবক। ওই ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে ওই যুবকেরা নাবালিকাটিকে গণধর্ষণ করে বলে অভিযোগ।

এমনকি ঘটনাটি গোপন রাখার জন্য নাবালিকাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকিও দেওয়া হত বলে অভিযোগ। ভয়ে, লজ্জায় এতদিন নাবালিকাটি ঘটনাটি গোপন রেখেছিল। কিন্তু অত্যাচারের মাত্রা সীমা ছাড়িয়ে যাওয়ায় বাধ্য হয়ে পরিবারকে ঘটনাটি জানায় নাবালিকা।  মেয়ের কাছে সমস্ত ঘটনা জানার পরই শনিবার বোলপুর থানায় গিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন নির্যাতিতার মা।

তাঁর অভিযোগ, নাবালিকার অশালীন ভিডিয়ো বানিয়ে রাখা হয়৷ সেই ভিডিয়ো দেখিয়েই পাঁচ যুবক ব্ল্যাকমেল করে একাধিকবার নাবালিকাকে গণধর্ষণ করে৷ আদিবাসী মহিলার এই অভিযোগ পেয়েই 'কালপিট'-দের ধরতে তৎপর হয় বোলপুর পুলিশ। রাতেই বোলপুরের লায়েকবাজার এলাকা থেকে ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়।

আরও এক অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ৷ অন্যাদিকে, নির্যাতিতাকে শারীরিক পরীক্ষার জন্য রবিবার বোলপুর মহকুমা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।  প্রসঙ্গত, দিন পনের আগেই শান্তিনিকেতনে এক আদিবাসী নাবালিকাকে তুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ ওঠে। শান্তিনিকেতনের চড়ক মেলা থেকে চার-পাঁচজন যুবক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান দেখার নাম করে নাবালিকাটিকে নদীর ধারে নিয়ে যায় এবং সেখানেই তারা তাকে গণধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। সেই ঘটনার রেশ মিটতে না মিটতে ফের আদিবাসী নাবালিকা গণধর্ষণের শিকার হল বলে অভিযোগ।