৪৪ জন কৃষকের শিরচ্ছেদ করল ইসলামিক জঙ্গি বোকো হারাম

৪৪ জন কৃষকের শিরচ্ছেদ করল  ইসলামিক জঙ্গি বোকো হারাম

নাইজেরিয়ায় ফের তাণ্ডব চালাল বোকো হারাম জঙ্গিরা। ধানজমিতে কর্মরত অবস্থায় থাকা কমপক্ষে ৪৪ জন কৃষকের একসঙ্গে শিরচ্ছেদ করল। নৃশংস এই ঘটনাটি ঘটেছে নাইজেরিয়ার উত্তর-পূর্বে অবস্থিত বোর্নো প্রদেশের গারিন কায়াসহেবে গ্রামে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, শনিবার গারিন কায়াসহেবে গ্রাম সংলগ্ন ধানজমিতে চাষের কাজ করছিলেন স্থানীয় কৃষকরা। আচমকা সেখানে হামলা চালায় বোকো হারাম জঙ্গিরা। এরপর জমিতে কর্মরত কৃষকদের এক জায়গায় জড়ো করে কমপক্ষে ৪৪ জন কৃষকের শিরচ্ছেদ করে।

ধারালো অস্ত্র দিয়ে জখমও করেন অনেককে। পরে খবর পেয়ে স্থানীয় প্রশাসনিক আধিকারিরা ঘটনাস্থলেই যেতেই তারা পালিয়ে যায়। জখমদের হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। তাঁদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

 এপ্রসঙ্গে বোর্নো কৃষক সমিতির প্রাক্তন প্রধান হাসান জাবারমারি জানান, শনিবার বিকেলের দিকে গারিন কায়াসহেবে গ্রামে কাজ করছিলেন স্থানীয় কৃষকরা। হঠাত্‍ সেখানে হামলা চালিয়ে ৪৪ জন কৃষককে নৃশংসভাবে হত্যা করে বোকো হারাম জঙ্গিরা।

এর ফলে বেশ কয়েকজন জখম হয়েছেন। এর আগেও বোর্নো প্রদেশের একইভাবে হামলা চালিয়েছে জঙ্গিরা। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি আহমেদ সাতোমিও এই ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ঘটনাস্থলে প্রচুর নিরাপত্তারক্ষী পাঠানো হয়েছে বলে জানান।

আরও উল্লেখ করেন, ওই নিরাপত্তারক্ষীরা জঙ্গিদের সন্ধানে তল্লাশি শুরু করলেও এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। রাষ্ট্রসংঘ (UN) -এর প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, ২০০৯ সাল থেকে উত্তর-পূর্ব নাইজেরিয়া সহ প্রতিবেশী দেশ নাইজার,

চাদ ও ক্যামেরুনে একাধিক জঙ্গি হামলা চালিয়েছে ইসলামিক জঙ্গি সংগঠন বোকো হারাম। এর মধ্যে শুধু নাইজেরিয়াতেই ৩০ হাজারের বেশি মানুষকে হত্যা করেছে। তাদের তাণ্ডবে ঘর ছাড়া হয়েছেন আরও ৩০ লক্ষ মানুষ।