J অক্ষর দিয়ে শুরু নামের মানুষরা কেমন হয়

J অক্ষর দিয়ে শুরু নামের মানুষরা কেমন হয়

কথায় আছে, নাম দিয়ে যায় চেনা। এটা কিন্তু খুব ভুল কথা নয়। আপনার নামের প্রথম অক্ষর বলে দেবে আপনি কী ধরনের মানুষ। প্রত্যেকের নামেরই একটা বিশেষত্ব আছে, যা থেকে সেই ব্যক্তির চরিত্র সম্পর্কে একটা ধারণা করা যায়। জ্যোতিষশাস্ত্র মতে, নামের প্রথম অক্ষর অনেক অর্থ বহন করে। নামের প্রথম অক্ষর দিয়ে সেই ব্যক্তি সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে পারা যায়। নামের প্রথম অক্ষর দিয়ে আপনি নিজের ভাগ্য যাচাই করতে পারেন। তাই নামের প্রথম অক্ষরের যথেষ্ট গুরুত্ব আছে।

দেখে নিন আপনার নামের প্রথম অক্ষর আপনার সম্পর্কে কী বলছে। বহুদিন ধরে প্রেমে পড়েছেন একজনের, আর জানতে ইচ্ছে করছে সেই মানুষটি কেমন! কিম্বা সেই মানুষটির পছন্দ আর অপছন্দ কী , জানার প্রবল আগ্রহ রয়েছে আপনার! শত চেষ্টা করেও কিছু খোঁজ যদি মেলে, তাহলে রয়েছে এক সহজ পথ। পছন্দের মানুষটির নাম থেকেই জেনে নিতে পারবেন , তাঁর চরিত্র।

নামের আদ্যাক্ষরে লুকিয়ে থাকে সংশ্লিষ্ট ব্যাক্তির বহু চারিত্রিক গুণ। ইংরাজি বর্ণমালার বিভিন্ন অক্ষরের অন্তরালে লুকিয়ে রয়েছে এই রহস্য । ইংরাজি বর্ণমালার ১০ তম বর্ণ J। এই বর্ণ দিয়ে যাঁদের নাম শুরু হয় তাঁরা সাধারণত ক্ষমতাবান মানুষ হন। যেখানেই যান না কেন , তাঁদের কাছে নতি স্বীকার করতে সবাই বাধ্য হন। এছাড়াও বহু গুণ থাকে এঁদের , একনজরে দেখে নেওয়া যাক, সেই সমস্ত গুণ। J= আপনি কি জানেন ‘জে ফর জাস্টিস’। আপনি সবসময় তুল্যমূল্য বিচার করে চলেছেন।

সেটা আপনি যেমন নিজের জন্য করেন, ঠিক একই ভাবে অপরের ক্ষেত্রেও করেন। আপনি কাউকে বঞ্চিত করতে চান না, কাউকে কম বা বেশি দিতে চান না। আপনি সবার আত্মনিয়ন্ত্রণ বা স্বাধিকারকে সমর্থন করেন। আপনি এমন একজন বন্ধু, যে চায় সবাই সমান ভাবে খেয়ে পড়ে বাঁচুক। সবাই সুখে থাকুক। নিশ্চিত থাকুন, আপনার এইভাব আপনার জন্মগত প্রতিভাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সাহায্য করবে। J নামের আদ্যাক্ষরের বিশেষ চারিত্রিক বৈশিষ্টসংখ্যাতত্ত্ব অনুযায়ী J অক্ষরটির সঙ্গে ১ সংখ্যাটি সম্পর্কিত।

আর সেই বৈশিষ্ট অনুযায়ী , এই ধরনের মানুষরা যেখানেই থাকুন না কেন, ক্ষমতা এঁদের হাতে সব সময়ে ক্ষমতা থাকে। প্রভাব বিস্তার করার ক্ষেত্রে এঁদের ক্ষমতাবান হওয়ার বিষয়টি খুবই কার্যকরি হয়। যেকোনও মানুষের ওপর এঁরা সহজেই প্রভাব বিস্তার করতে পারেন। কর্মী হিসাবে এঁরা কেমন হন ?এঁরা সমসময়ে যেকোনও জায়গার শীর্ষে থাকতে চান। তাই ক্ষমতা এঁদের ছায়াসঙ্গী। যেকোনো কাজের দায়িত্ব এঁদের ওপর ছেড়ে দিয়ে নিশ্চিন্তে থাকা যায়। যেকোনও কাজের বিষয়ে এঁরা আত্মবিশ্বাসী হন।

বুদ্ধিদীপ্ত হওয়ায় এঁরা যেকোনও সমস্যাজনক পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে পারেন। খুবই কর্মঠ ব্য়াক্তি হন এঁরা। পাশপাশি পরিশ্রমী হন বলে , যেকোনও মানুষই কাজের বিষয়ে এঁদের ওপর ভরসা করতে পারেন। আর কী কী গুণ থাকে এঁদের ?নামের আদ্যাক্ষরে J থাকলে, তাঁরা জন্মগত শিল্পী মানুষ হন। এঁদের মধ্যে শিল্পী সত্ত্বা অনেক বেশি থাকে।

এছাড়াও সৃষ্টিশীল ভাবনার ক্ষেত্রে এঁদের জুড়ি মেলা ভার। পরিস্থিতি যত জটিলই হোক ,সমস্যা থেকে বেরিয়ে আসতে এঁরা জানেন। তাই J আদ্যাক্ষর যুক্ত ব্যক্তিদের ওপর নির্ভর করা যায়। সময়ে সময়ে ভালো 'অভিনয়' করেও এঁরা পরিস্থিতি সামাল দিয়ে দেন! সম্ভাবনাময় ব্যক্তিত্বএঁদের মধ্যে ভবিষ্যতের নেতা কিম্বা কোনও সংস্থা কর্তা স্থানীয় ব্যক্তি হওয়ার যোগ্যতা থাকে। কোনও ব্যবসা বা সেই সম্পর্কীয় উদ্যোগে সামিল হতে এঁরা সর্বদা প্রস্তুত। প্রবল মনের জোড় হওয়ায়, পথে যতই বাঁধা আসুক এঁরা সমস্তই উতরে যান। তবে মাঝে মধ্যে এঁরা দিশাহীনাতয় ভোগেন। কোনও সময়ে আলস্যও এঁদের চেপে ধরে। ফলে কাজের ক্ষেত্রে অসুবিধায় পড়েন এনারা।