জেনে নিন সেলফোনের রেডিয়েশন কি ও এর ক্ষতিকারক প্রভাব কতখানি

জেনে নিন সেলফোনের রেডিয়েশন কি ও এর ক্ষতিকারক প্রভাব কতখানি

আজবাংলা   এনার্জি বা তরঙ্গ হিসেবে যে কোন রূপে এক জায়গা থেকে অন্য-জায়গাতে যাওয়াকেই রেডিয়েশন বা বিকিরণ বলে। ডাক্তারি শাস্ত্রে নির্দিষ্ট রোগের চিকিৎসা এবং রোগনির্ণয়ের ক্ষেত্রে, সামান্য পরিমাণ রেডিয়েশনের প্রয়োগ কিন্তু ক্ষতিকারক না হলেও অনেকদিন ধরে রেডিয়েশনের সংস্পর্শে থাকাটা কিন্তু উদ্বেগজনক।

রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি (আরএফ) আসলে রেডিও ওয়েভের অন্য নাম। অ্যান্টেনার ভেতরে বৈদ্যুতিক চার্জের গতির দ্বারা রেডিও ওয়েভের সৃষ্টি হয় এবং তারপরে সেটা আলোর সমান গতিবেগে অ্যান্টেনার বাইরে নির্গত হয়। রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি (আরএফ) থেকে নির্গত সংকেতকে হার্টজ দ্বারা মাপা হয়।

মানুষের প্রাত্যহিক জীবনে রেডিও ফ্রিকোয়েন্সির (আরএফ) প্রচুর ভূমিকার মধ্যে সেলফোন হল অন্যতম। সেলফোন থেকে প্রধানত ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক বিকিরণ বের হয় যা ফোনে কথা বলার জন্য লাগে। সেলফোনের অতিরিক্ত ব্যবহার স্বল্পমেয়াদী থেকে গুরুতর রোগের কারণ। নীচে উদাহরনসহ ব্যখা করা হল- 

দুর্বল রোগপ্রতিরোধ -  সেলফোন ব্যবহারের অদম্য নেশা কিন্তু তলায় তলায় রোগজীবাণুকে আশ্রয় দেয় এবং আমাদের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতাকে দুর্বল করে দেয়।

চাপ বা ধকল বেড়ে যায়-  সেলফোন থেকে নির্গত উচ্চ মাত্রার কম্পাঙ্ক কিন্তু রিং, মেসেজ অ্যালার্ট এবং রিমাইন্ডার ইত্যাদির দ্বারা আমাদের বিপদের দিকে ঠেলে দেয়।

ক্রনিক ব্যথার ঝুঁকি-  মেসেজ করতে, ফোন করতে কিংবা সেলফোন থেকে মেইল করতে গিয়ে হাত এবং আঙুলের অত্যধিক ব্যবহারে গাঁটে যন্ত্রণার অন্যতম কারণ।

রক্তচাপের বৃদ্ধি-  সারাদিনে ৩০টা বা তার থেকে বেশী ফোন কিন্তু আমাদের রক্তচাপ বাড়িয়ে দেয়, যা অনেক ধরনের পরীক্ষা এবং গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে।