Haritaki| হরিতকীর এই স্বাস্থ্য উপকারিতাগুলি জানুন  

Haritaki| হরিতকীর এই স্বাস্থ্য উপকারিতাগুলি জানুন   

ত্রিফলার মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ ও পরিচিত একটি ফলের নাম হল হরীতকী Haritaki। আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে হরিতকী র রয়েছে বিশেষ গুণ ও উপকারিতা।  হরিতকী  ফলটি ট্যানিন, অ্যামাইনো এসিড, ফ্রুকটোজ ও বিটা সাইটোস্টেবল সমৃদ্ধ। হরিতকী দেহের অন্ত্র পরিষ্কার করে এবং একই সঙ্গে মানব দেহের শক্তি বৃদ্ধি করে। এটা রক্তচাপ ও অন্ত্রের খিঁচুনি কমাতে বেশ কার্যকর। হরিতকী স্বাদে খুব তেতো হলেও এই গাছের ফল বীজ ও পাতা সবই খুব উপকারী।এই ফলটির আদি নিবাস বাংলাদেশ ও ভারতে। এই ফলের  স্বাস্থ্য উপকারিতাগুলি জেনে নিন ……

  হরিতকী গুড়ো করে ঘিয়ের সঙ্গে মিশিয়ে খেলে পিত্তশূল দূর হয়।  পেট পরিষ্কার রাখতে রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে অল্প বিট নুন, ২ গ্রাম লবঙ্গ বা দারুচিনির সঙ্গে হরিতকীর গুঁড়া মিশিয়ে খেয়ে নিন।নতুন ও পুরাতন কোষ্ঠকাঠিন্য, স্নায়বিক দুর্বলতা, অবসাদ এবং অধিক ওজনের চিকিৎসায় এই ভেষজ ব্যবহৃত হয়।ভেজানো জল রক্তচাপ এবং অন্ত্রের খিঁচুনি হ্রাস করে।

যারা অ্যালার্জির সমস্যায় ভোগছেন, তারা রোজ হরিতকী ফুটিয়ে সেই জল পান করলে উপশম পাবেন।হরিতকীর ভেজানো জল রক্তচাপ এবং অন্ত্রের খিঁচুনি হ্রাস করে।গলাব্যথা বা মুখ ফুলে গেলে হরিতকীর জলে ফুটিয়ে সেই জল দিয়ে গার্গল করলে উপশম মিলবে।দাঁতের ব্যথায় হরিতকীর গুঁড়া লাগালে আশ্চর্য রকম উপকার পাবেন।

ব্যাপক ছাড়ে  Amazon-এ শপিং করতে এই খানে ক্লিক করুন

এবার জেনে নিন প্রতিদিন হরিতকী খেলে আরও যেসব ক্ষেত্রে উপকার পাওয়া যায়—

১. হরিতকী চূর্ণ ঘিয়ের সঙ্গে মিশিয়ে খেলে পিত্তশূল দূর হয়।

২. হরিতকী ভেজানো জল রক্তচাপ এবং অন্ত্রের খিঁচুনি হ্রাস করে। হৃদপিন্ড ও অন্ত্রের অনিয়ম দূর করে।

৩. এটি রেচক, কষাকারক, পিচ্ছিলকারক, পরজীবীনাশক, পরিবর্তনসাধক, অন্ত্রের খিঁচুনি রোধক এবং স্নায়বিক শক্তিবর্ধক। যে কারণে এটি নতুন ও পুরাতন কোষ্ঠকাঠিন্য, স্নায়বিক দুর্বলতা, অবসাদ এবং অধিক ওজনের চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয়।

৪. হরিতকীর গুঁড়ো জলেতে মিশিয়ে খেলে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ে।

৫. যারা চুলকানির (অ্যালার্জি) সমস্যায় কষ্ট পাচ্ছেন, তারা প্রতিদিন হরিতকী ফুটিয়ে সেই জল খেলে আরাম পাবেন।

৬. হরিতকীতে অ্যানথ্রাইকুইনোন থাকার কারণে রেচক বৈশিষ্ট্যসমৃদ্ধ এবং এটি কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে।

৭. হরিতকী গুঁড়ো নারিকেল তেলের সঙ্গে ফুটিয়ে আঙ্গুলের ডগায় নিয়ে চুলের গোড়ায় ম্যাসেজ করলে চুল ভালো থাকে।

৮. গলাব্যথা বা মুখ ফুলে গেলে হরিতকী জলেতে ফুটিয়ে সেই জল দিয়ে গার্গল করলে ব্যথা কমে।

ব্যাপক ছাড়ে  Amazon-এ শপিং করতে এই খানে ক্লিক করুন

৯. দাঁতে ব্যথা হলে হরিতকী গুঁড়ো লাগালে ব্যথা দূর হয়।

১০. রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে সামান্য বিট লবণ, ২ গ্রাম লবঙ্গ বা দারুচিনির সঙ্গে হরিতকীর গুঁড়ো মিশিয়ে খেলে পেট পরিষ্কার হয়।