বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা পা-এর অধিকারী এই মেয়েটি, নাম তুললেন গিনেস বুকে

বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা পা-এর অধিকারী এই মেয়েটি, নাম তুললেন গিনেস বুকে

আজ বাংলা: গিনেস ওয়ার্ল্ড বুকে নাম তুললেন এক তরুণী। এই মেয়েটি গোটা বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে লম্বা পায়ের অধিকারী। উল্লেখ্য, বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা মানুষের কথা অনেকেই শুনেছেন। কিন্তু যদি বলা হয় কোন মানুষের সবচেয়ে পা আছে? অনেকেই প্রশ্ন শুনে হতবাক হয়ে যাবেন। এমন রেকর্ডও আছে।


মেয়েটির নাম ম্যাকি কুরিন। তাঁর বয়স কিন্তু মাত্র ১৭। সে আমেরিকার টেক্সাসের বাসিন্দা। তবে শুধুমাত্র ১৭ বছর বয়সেই বিশ্বের মহিলাদের মধ্যে সবচেয়ে লম্বা পায়ের কারণে বিশ্বসেরা শিরোপা রয়েছে ম্যাকি কুরিনের ঝুলিতে। তাঁর মোট উচ্চতা ৬ ফুট ১০ ইঞ্চি। দীর্ঘতম পা নিয়েই রেকর্ড তাঁর। এর আগে এই রেকর্ড ছিল রাশিয়ার একেতেরিনা লিসিনার দখলে।

লম্বায় এই রুশ তরুণীর পায়ের দৈর্ঘ্য ছিল ৫২.২ ইঞ্চি। সেখানে ম্যাকি কুরিনের ডান পা ১৩৪.৩ সেমি লম্বা ও বাম পা ১৩৫.৩ সেমি লম্বা। গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড ওয়েবসাইট উল্লেখ করা হয়েছে, ম্যাকি জানিয়েছে, যেসব ব্যক্তির অস্বাভাবিক শারীরিক বৈশিষ্ট্য রয়েছে তাদের এ নিয়ে লজ্জা পাওয়া উচিত নয়। নিজেকে আড়াল করা উচিত নয়। তাঁর কথায়, এই রেকর্ডটি সমস্ত লম্বা মহিলাদের অনুপ্রাণিত করবে।



ম্যাকির এই রেকর্ড সম্পর্কে তাঁর মা জানিয়েছেন, তিনি আগেই বুঝতে পেরেছিলেন যে অন্যান্য বাচ্চাদের চেয়ে ম্যাকি বেশ খানিকটা লম্বা। কারণ, মাত্র ১৮ মাস বয়সেই ম্যাকির উচ্চতা ছিল ২ ফুট ১১ ইঞ্চি। ম্যাকির উচ্চতা তাঁর বাড়ির মধ্যে সর্বোচ্চ।


তিনি তার মা এবং তার ভাইয়ের চেয়েও বেশ খানিকটা লম্বা। সোশ্যাল মিডিয়াতেও যথেষ্ট আক্টিভ এই তরুণী। সে জানিয়েছে, ভবিষ্যতে মডেল হিসাবে কাজ করতে চায় সে। সেক্ষেত্রে লম্বা পা-এর ক্ষেত্রে কিছুটা অসুবিধা হবে বলেও অবশ্য মেনে নিয়েছে ম্যাকি।