মায়ের ৫১ টি শক্তিপীঠের মাহাত্ম্য জেনে নিলেই কাটবে সমস্ত বাধা বিপত্তি

মায়ের ৫১ টি শক্তিপীঠের মাহাত্ম্য জেনে নিলেই কাটবে সমস্ত বাধা বিপত্তি

আজবাংলা   সকল শিশু যেমন মায়ের কোলে সুরক্ষিত থাকে, ঠিক তেমনি ভাবেই জগতের দেবী মা তাঁর সকল সন্তানদের আগলে রাখেন। যতই বাধা বিপতি নেমে আসুক না কেন মায়ের আশীর্বাদ সবসময় তাঁর সন্তানদের ওপরে থাকে। যে যতই নিজের জায়গায় বড় হয়ে যান না কেন মায়ের সামনে এসে সকলকে মাথা নত করতেই হয়।

সকল হিন্দুদের কাছে পবিত্রতম তীর্থস্থানগুলির মধ্যে অন্যতম হল শক্তিপীঠ। এটির পিছনে পুরান অনুযায়ী ঘটনাটি হল, সতীর দেহত্যাগের পর দেবাদিদেব মহাদেব অত্যন্ত রেগে গিয়ে প্রলয় ও তাণ্ডব নৃত্য শুরু করেন। মহাদেবের এই রুদ্ররূপ দেখে সকল দেবতারাই ভয়ে তটস্থ হয়ে যান। এমন সময়ে তাঁরা সকলে মিলে ভগবান বিষ্ণুর কাছে শরণাপন্ন হন।

সকল দেবতাদের সব কথা শুনে বিষ্ণুদেব এক উপায় বের করলেন। তখন বিষ্ণু নিজের সুদর্শন চক্র দিয়ে সতীর দেহ টুকরো টুকরো করে দেন। টুকরো টুকরো হয়ে মর্তের যেখানে যেখানে এই পবিত্র দেহাংশগুলি পড়েছে সেইগুলিই হয়ে উঠেছে দেবীর শক্তিপীঠ। মোট ৫১টি শক্তিপীঠের কথা বলা হয়ে থাকে। এখনে সকল শক্তিপীঠসমূহে শক্তিদেবী ভৈরবের সাথে অবস্থান করে থাকেন।

আসুন দেখে নিন কোথায় কোথায় শক্তিপীঠ এর মন্দির রয়েছে। আজকের প্রথম পর্ব।

স্থান - গন্ধকী, মুক্তিনাথ মন্দির, গন্ধকী নদী তীরে, পোখরা, নেপাল, দেহাংশ বা অলঙ্কার – মস্তিষ্ক, শক্তি - গন্ধকী চণ্ডী, ভৈরব – চক্রপাণি। স্থান - সুক্কর স্টেশনের নিকট, করাচি, পাকিস্তান, দেহাংশ বা অলঙ্কার – চক্ষু, শক্তি মহিষমর্দিনী, ভৈরব – ক্রোধিশ। স্থান - সুগন্ধা, শিকারপুর, গৌরনদী, সন্ধ্যা নদীর তীরে, বরিশাল শহর থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে, বাংলাদেশ, দেহাংশ বা অলঙ্কার – নাসিকা, শক্তি – সুগন্ধা,ভৈরব – ত্রয়ম্বক। স্থান - জ্বালামুখী, কাঙ্গড়া, হিমাচল প্রদেশ, ভারত, দেহাংশ বা অলঙ্কার – জিহ্বা শক্তি - সিদ্ধিদা (অম্বিকা), ভৈরব - উন্মত্ত ভৈরব।

স্থান - অমরনাথ, কাশ্মীর, শ্রীনগর হতে পহেলগাম এর মধ্য দিয়ে বাসে ৯৪ কিলোমিটার, দেহাংশ বা অলঙ্কার – গলা,শক্তি – মহামায়া,ভৈরব – ত্রিসন্ধ্যেশ্বর। স্থান -বৈদ্যনাথধাম, দেওঘর, ঝাড়খন্ড, দেহাংশ বা অলঙ্কার - হৃদয় বা হৃৎপিন্ডশক্তি – জয়দুর্গা ভৈরব – বৈদ্যনাথ। স্থান - জলন্ধর, পঞ্জাব, দেহাংশ বা অলঙ্কার - বাম বক্ষ, শক্তি – ত্রিপুরমালিনী, ভৈরব – ভীষণ। স্থান - বর্ধমান, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত,দেহাংশ বা অলঙ্কার – নাভি, শক্তি - মাতা সর্বমঙ্গলা দেবী, ভৈরব - ভগবান শিব/মহাদেব৷

স্থান - মানস, মানসরোবর হ্রদে কৈলাশ পর্বতের পাদদেশে, তিব্বত দেহাংশ বা অলঙ্কার - ডান হাত শক্তি - দক্ষিয়ানী,ভৈরব – অমর৷ স্থান - উজ্জনি, গুষকরা স্টেশন থেকে ১৬ কিলোমিটার, বর্ধমান জেলা, পশ্চিমবঙ্গ, দেহাংশ বা অলঙ্কার - ডান কব্জি, শক্তি - মঙ্গল চন্দ্রিকা,ভৈরব – কপিলাম্বর৷ স্থান - বেহুলা, কেতুগ্রাম, অজয় নদীর তীরে, কটোয়া থেকে ৮ কিলোমিটার বর্ধমান জেলা, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত, দেহাংশ বা অলঙ্কার - বাম হাত, শক্তি - বেহুলা দেবী,ভৈরব – ভীরুক৷

স্থান - গুহেশ্বরী মন্দির, পশুপতিনাথ মন্দিরের নিকট, নেপাল,দেহাংশ বা অলঙ্কার - উভয় হাঁটু, শক্তি – মহাশিরা, ভৈরব – কাপালী। স্থান - উদয়পুর, রাধাকিশোরপুর গ্রামের নিকট পাহাড় চূড়ায়, উদয়পুর, ত্রিপুরা, ভারত, দেহাংশ বা অলঙ্কার - ডান পা,শক্তি - ত্রিপুরা সুন্দরী, ভৈরব – ত্রিপুরেশ৷ স্থান - জলপেশ মন্দিরের নিকট, জলপাইগুড়ি জেলা, পশ্চিমবঙ্গ, দেহাংশ বা অলঙ্কার - বাম পা, শক্তি – ভ্রামরী, ভৈরব – অম্বর৷  স্থান - কামগিরি, কামাক্ষ্যা, নীলাচল পর্বত, গুয়াহাটি, অসম, দেহাংশ বা অলঙ্কার – যোনি, শক্তি - কামাক্ষ্যা,ভৈরব – উমানন্দ৷

স্থান - যোগাধ্যা, খীরগ্রাম, বর্ধমান জেলা, পশ্চিমবঙ্গ, দেহাংশ বা অলঙ্কার - ডান পায়ের বৃদ্ধাঙ্গুল, শক্তি – যোগাধ্যা,ভৈরব - ক্ষীর খন্ডক,স্থান - কালীপীঠ, কালীঘাট, কলকাতা , পশ্চিমবঙ্গ, দেহাংশ বা অলঙ্কার - ডান পায়ের আঙ্গুল, শক্তি – কালিকা,ভৈরব – নকুলেশ্বর৷ স্থান - প্রয়াগ, সঙ্গমের নিকট, এলাহাবাদ, উত্তর প্রদেশ, দেহাংশ বা অলঙ্কার - হাতের আঙ্গুল,শক্তি - ললিতা/মাধবেশ্বরী,ভৈরব – ভব৷ স্থান - বর্তমান কুরুক্ষেত্র বা প্রাচীন থানেশ্বর, হরিয়ানা, দেহাংশ বা অলঙ্কার - গোড়ালির হাড়, শক্তি – সাবিত্রী, ভৈরব – স্থনু৷

স্থান - নাইনাতিভু, জাফনা, শ্রীলঙ্কাদেহাংশ বা অলঙ্কার – নূপুর, শক্তি – ইন্দ্রাক্ষী ,ভৈরব – রাক্ষসেশ্বর৷ স্থান - চন্দ্রনাথ মন্দির, চন্দ্রনাথ পর্বত শিখর, সীতাকুণ্ড স্টেশনের নিকট, চট্টগ্রাম জেলা, বাংলাদেশ, দেহাংশ বা অলঙ্কার - ডান হাত,শক্তি – ভবানী,ভৈরব – চন্দ্রশেখর৷

দেহাংশ বা অলঙ্কার - বাম জঙ্ঘা,শক্তি – জয়ন্তী, ভৈরব – ক্রমাদিশ্বর৷স্থান - কিরীট, কিরীটকোন গ্রাম, লালবাগ কোর্ট রোড স্টেশন থেকে ৩ কিলোমিটার মুর্শিদাবাদ জেলা, পশ্চিমবঙ্গ, দেহাংশ বা অলঙ্কার – মুকুট,শক্তি – বিমলা,ভৈরব – সাংবর্ত৷ স্থান - বারাণসী, গঙ্গাতীরে মনিকর্ণিকা ঘাট, কাশী, উত্তর প্রদেশ, দেহাংশ বা অলঙ্কার - কানের দুল,শক্তি - বিশালাক্ষী ও মনিকর্ণি,ভৈরব – কালভৈরব৷ স্থান - কন্যাশ্রম, কন্যাকুমারী, ভদ্রকালী মন্দির, কুমারী মন্দির, তামিলনাড়ু, দেহাংশ বা অলঙ্কার – পিঠ, শক্তি – সর্বাণী,ভৈরব – নিমিষ৷