মালদার বিজেপি প্রার্থী গোপাল সাহাকে গুলির ঘটনায় ধৃত বিজেপির মন্ডল সভাপতি

মালদার  বিজেপি প্রার্থী গোপাল সাহাকে গুলির ঘটনায় ধৃত বিজেপির মন্ডল সভাপতি

মালদা  : মালদা বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী গোপাল সাহাকে গুলির ঘটনায় বিজেপির গ্রামীণ মন্ডল সভাপতি নিতাই মন্ডলকে গ্রেপ্তার করল মালদা থানার পুলিশ। ১৮ এপ্রিল রাতে প্রচার সেরে পুরাতন মালদার ঝন্টুমোড় এলাকায় দলীয় কার্যালয়ে বসে কর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন বিজেপি প্রার্থী গোপাল সাহা। সেই সময় দুষ্কৃতীরা তাকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় বলে অভিযোগ। সেদিন রাতেই গুলিবিদ্ধ গোপাল সাহাকে ভর্তি করা হয় মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে।

গভীর রাতে অস্ত্রোপচার করে চিকিৎসকেরা তার গলা থেকে একটি গুলি বের করে। এরপর ঘটনার তদন্তে নামে মালদা থানার পুলিশ। প্রথমে এই ঘটনায় ৬ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এরপর সাহেব ঘোষ নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করে মালদা থানার পুলিশ। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ জানতে পারে এই ঘটনার নেপথ্যে রয়েছে বিজেপি নেতা নিতাই মন্ডল। শুক্রবার রাতে তার বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তাকে ফাঁসানো হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন নিতাই মন্ডল।

শনিবার ধৃত নিতাই মন্ডল সহ মোট ৮ জনকে মালদা জেলা আদালতে পেশ করে পুলিশ। ধৃত সাহেব ঘোষ পুলিশের কাছে স্বীকার করে, নিতাই মন্ডলের প্ররোচনায় তারা বিজেপি প্রার্থীর ওপর গুলি চালায়। সে পুলিশকে আরো জানিয়েছে, নিতাই মন্ডল টাকা দিয়ে গোপাল সাহাকে খুনের সুপারি দেয় বিট্টু চৌধুরীকে। তার কথাতেই কালিয়াচক থানার শাহবাজ পুরের যুবক গুলি চালায় গোপাল সাহার উপর বলে পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে সে।

 বিজেপি-র একটি সূত্র জানাচ্ছে, এ বারের বিধানসভা ভোটে মালদহ কেন্দ্রে দলের টিকিটের দাবিদার ছিলেন নিতাই। প্রার্থী হিসেবে গোপালের নাম ঘোষণার পরে নিতাই এবং তাঁর অনুগামীরা বিজেপি দফতরে বিক্ষোভও দেখিয়েছিলেন।এই ঘটনায় বিজেপির জেলা সভাপতি গোবিন্দ মন্ডল জানান, আইন আইনের পথে চলবে এই ধরনের ঘটনায় যারা দোষী সাব্যস্ত হবে তাদের কঠোর শাস্তির দাবি করেন তিনি। মালদা থানার পুলিশ ঘটনার পূর্ণ তদন্ত শুরু করেছে।