আগামী দিনেও বিনামূল্যে কোভিড টিকা দেবে কেন্দ্র', 'মন কি বাতে' আশ্বস্ত করলেন মোদি

আগামী দিনেও বিনামূল্যে কোভিড টিকা দেবে কেন্দ্র', 'মন কি বাতে' আশ্বস্ত করলেন মোদি

করোনা পরিস্থিতিতে প্রতিষেধক নিয়ে গুজব এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। রবিবার ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠানে দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলেন তিনি। তাতে তিনি বলেন, ‘‘করোনার প্রথম ধাক্কা কাটিয়ে উঠেছিলাম আমরা। আত্মবিশ্বাস ছিল মনে। কিন্তু এই মুহূর্তে দেশ বিধ্বস্ত। করোনা আমাদের ধৈর্য ও সহনশীলতার পরীক্ষা নিচ্ছে।’’ করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্যগুলির পাশে রয়েছে বলেও বার্তা দেন মোদী। তিনি বলেন, ‘‘ আপনারা জানেন রাজ্যে রাজ্যে বিনামূল্য টিকা পাঠিয়েছি আমরা।

৪৫-এর ঊর্ধ্বে সকলে তার সুবিধা পাবেন। ১ মে থেকে ১৮-র ঊর্ধ্বে হলেই টিকা পাবেন। কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে রাজ্যগুলিকে সর্বতো ভাবে সাহায্য করছে কেন্দ্র।’’ রবিবার ‘মন কি বাত’-এর ৭৬তম পর্ব ছিল। ইতিমধ্যে দেশে দৈনিক সংক্রমণ সাড়ে তিন লক্ষের কাছে পৌঁছে গিয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘‘করোনাকে হারানোই এই মুহূর্তে প্রধান লক্ষ্য আমাদের। প্রতিষেধক নেওয়া যেমন জরুরি, তেমনই সাবধানতা অবলম্বন করে চলা প্রয়োজন। সংক্রমণ যেমন বাড়ছে, তার মধ্যে সুস্থতাও কিন্তু বাড়ছে।’’  

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কথায়, 'করোনা মানুষের ধৈর্যের পরীক্ষা নিচ্ছে। তাই সহজে হেরে গেলে চলবে না। কোভিডের প্রথম ধাক্কা সফলভাবেই সামাল দিয়েছিল দেশ। যার জন্য দেশবাসীর আত্মবিশ্বাস বেড়েছিল। কিন্তু দ্বিতীয় ধাক্কা দেশকে কাঁপিয়ে দিয়েছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে বিভিন্ন ক্ষেত্রের বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে বৈঠক করেছি আমি।' করোনা যোদ্ধাদের সংগ্রামকে কুর্নিশ জানাতে এদিন বিভিন্ন রাজ্যের চিকিত্‍সক, নার্স, অ্যাম্বুল্যান্স চালকদের সঙ্গে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। দেশবাসীর তরফ থেকে তাঁদের ধন্যবাদও জানান তিনি।  

করোনাকে হারানোই এই মুহূর্তে প্রধান লক্ষ্য আমাদের। প্রতিষেধক নেওয়া যেমন জরুরি, তেমনই সাবধানতা অবলম্বন করে চলা প্রয়োজন: মোদী

কোয়রান্টিনে থাকা মানুষকে বাড়িতে প্রয়োজনীয় সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন অনেকে। এই সঙ্কটের সময়ও যে ভাবে সম্ভব মানুষের পাশে দাঁড়ানোর নিদর্শন উঠে আসছে। বাইরে থেকে আসা মানুষের জন্য সঠিক বন্দোবস্ত করা হচ্ছে: মোদী

দেশে সংক্রমণ যেমন বাড়ছে, তেমনই সুস্থও হয়ে উঠছেন বহু মানুষ: মোদী

করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এই মুহূর্তে ইতিবাচক মনোভাবই সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন। চিকিৎসক, নার্সদের মতো অ্যাম্বুল্যান্স চালকরাও এই মুহূর্তে সাহসিকতার সঙ্গে কাজ করছেন: মোদী

আমাদের স্বাস্থ্যকর্মী, চিকিৎসক এবং নার্সরা কোভিডের বিরুদ্ধে অসীম সাহসের সঙ্গে লড়ছেন। গত এক বছরে অতিমারির সঙ্গে নানা অভিজ্ঞতা হয়েছে তাঁদের: মোদী

টিকা নিয়ে কোনও গুজবে কান দেবেন না। আপনারা জানেন রাজ্যে রাজ্যে বিনামূল্য টিকা পাঠিয়েছি আমরা। ৪৫-এর ঊর্ধ্বে সকলে তার সুবিধা পাবেন। ১ মে থেকে ১৮-র ঊর্ধ্বে হলেই টিকা পাবেন: মোদী

কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে রাজ্যগুলিকে সর্বতো ভাবে সাহায্য করছে কেন্দ্র: মোদী

এমন পরিস্থিতিতে আপনাদের সঙ্গে কথা বলছি যখন কোভিড আমাদের ধৈর্য এবং যন্ত্রণা সহ্য করার ক্ষমতার পরীক্ষা নিচ্ছে। প্রিয়জনদের অনেকে অকালে আমাদের ছেড়ে চলে গিয়েছেন: মোদী

প্রতিষেধক নিয়ে কোনও রকম গুজবে কান দেবেন না। রাজ্যগুলিকে ইতিমধ্যেই বিনামূল্যে প্রতিষেধক পাঠিয়েছে কেন্দ্র: মোদী

এই সঙ্কটের মুহূর্তে প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে যে ভাবে রোগীদের সাহায্য করছেন চিকিৎসরা, তা প্রশংসনীয়, কারণ অনলাইনেও এখন রোগীদের পরামর্শ দিচ্ছেন তাঁরা: মোদী

করোনার প্রথম ঢেউ যখন আছড়ে পড়েছিল, সফল ভাবেই তা সামলে উঠেছিলাম আমরা। কিন্তু এই সময় দেশ বিধ্বস্ত। পরিস্থিতি সামাল দিতে সব ক্ষেত্রের মানুষের সঙ্গে কথা হয়েছে আমার। কৃষক, প্রতিষেধক উৎপাদনকারী সংস্থা, অক্সিজেন উৎপাদন সংস্থার আধিকারিকদের সঙ্গে কথা হয়েছে: মোদী

করোনা আমাদের সবার ধৈর্য ও সহনশীলতার পরীক্ষা নিচ্ছে: মোদী

প্রথম ধাক্কা কাটিয়ে আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠেছিল দেশ: মোদী

I urge people to not fall prey to any rumour about vaccine. You all must be aware that Govt of India has sent free vaccine to all State Govts. All people above 45 yrs of age can benefit from this. From May 1st, vaccines will be available for every person above 18 years of age: PM pic.twitter.com/FTy75lSx5q

— ANI (@ANI) April 25, 2021