জুকারবার্গের সংস্থার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ভারতকে পাশে পেতে মোদীকে ফোন মরিসনের

জুকারবার্গের সংস্থার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ভারতকে পাশে পেতে মোদীকে ফোন মরিসনের

ফেসবুক ও গুগলের সঙ্গে খবর শেয়ার নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার বিরোধ তুঙ্গে। মার্ক জুকারবার্গের সংস্থার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এবার বিশ্বের অন্যান্য দেশগুলোকেও সঙ্গে পেতে মরিয়া অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। ফেসবুক ও গুগলের সঙ্গে বিরোধিতার ইস্যুতে ইতিমধ্যেই মোদীর সঙ্গে ফোনে কথা হয়েছে মরিশনের।

একই কারণে তিনি কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর সঙ্গেও কথা বলেছেন। গুগল, ফেসবুকের মতো সংস্থাগুলিকে খবরের লিঙ্ক শেয়ার করতে হলে অস্ট্রেলিয়ার সংবাদমাধ্যমকে অর্থ দিতে হবে। বিনা অনুমতিতে তা শেয়ার করা যাবে না। গুগল শর্তটি মেনে নিলেও বাধ সেধেছে ফেসবুক। তারা কোনও মতেই অস্ট্রেলিয়ার এই আইন মানতে রাজি নয়।

ইতিমধ্যেই তুমুল বিবাদ শুরু হয়েছে। প্রস্তাবিত আইনের প্রতিবাদে গত দু'দিন ধরে ফেসবুকে কোনও রকম খবর দেখতে পাচ্ছিলেন না অস্ট্রেলীয়রা। কোনও খবরের লিঙ্কও শেয়ারও করতে দেওয়া হচ্ছিল না তাঁদের। মার্ক জুকারবার্গের সংস্থার এই পদক্ষেপেপৃর বিরুদ্ধে সরব অস্ট্রেলিয় প্রধানমন্ত্রী মরিশন।

ফেসবুর কর্তৃপক্ষকে আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছেন তিনি। কিন্তু প্রথম সারির তাবত্‍ পশ্চিমী দেশকে ছেড়ে কেন এই ইস্যুতে অস্ট্রেলিয়া ভারতকে পাশে চাইছে সেটা নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে। তাহলে কী ভবিষ্যতে ভারতেও এরকম কোনও নিষেধাজ্ঞা অথবা বিধিনিয়ম আনা হবে? শুরু হয়েছে জল্পনা।