কেরলকে ১০ বছরের মধ্যেই ইসলামিক রাজ্য বানানোর হুমকি মুসলিম ধর্মগুরুর

কেরলকে ১০ বছরের মধ্যেই ইসলামিক রাজ্য বানানোর হুমকি মুসলিম ধর্মগুরুর

আজবাংলা     কেরলে খিলাফত গঠনের আহ্বান জানিয়ে আগামী ১০ বছরের মধ্যে এখানে ইসলামিক রাজ্য প্রতিষ্ঠা করার হুমকি দিল একজন মুসলিম ধর্মগুরু। ওই ব্যক্তির নাম মুজাহিদ বালুসেরি  । তার এই বক্তব্যের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট হওয়ার পরেই কেরলের হিন্দু ও খ্রিশ্চান সম্প্রদায়ের তরফে তীব্র নিন্দা করা হয়েছে।

সম্প্রতি ওই মুসলিম ধর্মগুরুর একটি ভিডিও প্রকাশ্যে আসে। তাতে ওই ব্যক্তিকে তথাকথিত মুজাহিদদের কাছে কেরলে খিলাফত  (caliphate) প্রতিষ্ঠার আহ্বান জানাতে শোনা যাচ্ছে। সে বলছে, ‘শুধুমাত্র প্রতি শুক্রবার কেরলের সমস্ত মুসলিমকে মুজাহিদ মসজিদে পাঠান। তাহলে আগামী ১০ বছরের মধ্যেই কেরলকে ইসলামিক রাজ্যে পরিণত করব আমরা।

কারণ এটা আমাদের কর্তব্য। এর জন্য যদি আমরা কেরলে থাকা মুসলিমদের অন্য শাখাগুলিকে তুলে দিই। এবং তাদের মুজাহিদদের অধীনে নিয়ে আসি তাহলে এই কাজ খুব সহজেই সম্পন্ন হবে। একজন মানুষ নৈতিকভাবে উপযুক্ত হতে পারেন। কিন্তু, তিনি যদি অন্য কোনও ভগবানকে বিশ্বাস করেন তাহলে স্বর্গে যেতে পারবেন না।’

কেরলের ওই ধর্মগুরুর মন্তব্যের কথা প্রকাশ্যে আসার পরেই তীব্র সমালোচনা করা হয় হিন্দু ও খ্রিশ্চান সম্প্রদায়ের তরফে। আরও জানা যায়, এই প্রথম নয় এর আগে ২০১৭ সালে হিন্দুদের মন্দিরকে বেশ্যালয়ের সঙ্গে তুলনা করেছিল ওই ধর্মগুরু। মুসলিমদের উদ্দেশে বলেছিল, ‘তোমরা যদি কোনও হিন্দু মন্দির বা উৎসবে দান কর তাহলে তোমরা ভয়ানক পাপের ভাগীদার হবে। তোমরা কখনই বেশ্যালয় বা পাবে টাকা দান করো না।’