নাগ পঞ্চমী

নাগ পঞ্চমী

 

নাগ পঞ্চমী Nag Panchami   কেন পালন করা হয়? শ্রাবণ মাসের শুক্ল পক্ষের পঞ্চমী তিথি নাগ পঞ্চমী নামে পরিচিত। এই দিনটি হিন্দু ধর্মের অত্যন্ত পবিত্র দিন। পৌরাণিক বিশ্বাস মতে, এদিন নাগ বা সর্পকুল নাগলোক বা পাতাল লোক থেকে মানবজাতির উদ্দেশ্যে আশীর্বাদ প্রেরণ করেন।

ভারতবর্ষের সনাতন হিন্দু ধর্মানুসারীরা বিশ্বাস করেন, এই আশীর্বাদের ফলে পারিবারিক ও ব্যক্তি জীবনে সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি আসে। নাগ পঞ্চমীতে নাগ দেবতা ও মা মনসার পুজো করা হয়। ধর্মীয় বিশ্বাস মতে, এই দিন নাগ দেবতার পূজা করলে রাশিফলে রাহু ও কেতু সম্পর্কিত ত্রুটি দূর হয়। সাপের ভয় ও সাপের কামড় থেকে মুক্তি পেতে নাগ পঞ্চমীতে কালসর্প যোগও পূজা করা হয়। এদিন মা মনসার পূজা করে পরিবারের রক্ষার জন্য আরাধনা করা হয়।

লিঙ্গ পুরাণ অনুযায়ী, সৃষ্টির সৃজনের সময় ঘোর তপস্যা করেন ব্রহ্মা। তখন একদা তিনি হতাশ হয়ে পড়েন এবং ক্রোধের বশে তাঁর অশ্রু পৃথিবীতে পড়ে। তৎক্ষণাৎ তা সাপের রূপে উৎপন্ন হয়। সাপেদের ওপর যাতে অত্যাচার না-করা হয়, তার জন্য সূর্য তাদের পঞ্চমী তিথির অধিপতি ঘোষণা করেন। তার পর থেকেই পঞ্চমী তিথিতে নাগের পুজো করার বিধান রয়েছে। নাগ পঞ্চমীর দিনে কী করবেন এবং কী করবেন না, জেনে নিন—

এদিন সূর্যোদয়ের আগে উঠে স্নান করে পুজোর সংকল্প গ্রহণ করুন। পুজোর স্থানে নাগদেবতার ছবি লাগান বা মাটি নাগ দেবতা তৈরি করুন এবং চৌকির ওফর লাল কাপড় বিছিয়ে সেখানে স্থাপন করে দিন। হলুদ, রোলী, চাল, কাঁচা দুধ ও ফুল অর্পণ করে নাগ দেবতার পুজো করুন। এর পর কাঁচা দুধ, চিনি, ঘি মিশিয়ে তাঁকে অর্পণ করুন।

নাগ পঞ্চমীর দিনে অনন্ত, বাসুকী, পদ্ম, মহাপদ্ম, কুলীর, কর্কট ও শঙ্খ নামক অষ্টনাগের ধ্যান করে পুজো করা উচিত। এবার নাগদেবতার আরতি করে সেখানে বসেই নাগ পঞ্চমীর ব্রতকথা পড়ুন। এর পর সুখ-শান্তির প্রার্থনা করুন।

এদিন মহিলারা নাগ দেবতাকে নিজের ভাই জ্ঞানে পুজো করে পরিবারের রক্ষার প্রতিশ্রুতি প্রার্থনা করতে হয়। প্রচলিত ধারণা অনুযায়ী নাগ পঞ্চমীর দিন নাগেদের দুধ অর্পণ করলে অক্ষয় পুণ্য লাভ করা যায়।

নাগ দেবতার পুজো করলে বাড়িতে ধন আগমনের উৎস বৃদ্ধি পায়। শাস্ত্র মতে নাগ দেবতা গুপ্তধনের রক্ষা করেন। এঁদের পুজো করলে আর্থিক অনটন দূর হয় ও বংশবৃদ্ধির পথে বাধার অবসান ঘটে। তাই এ দিন ধন বৃদ্ধির জন্য নাগ দেবতার পুজোকরা উচিত। 

গৃহ নির্মাণ, পিতৃদোষ ও বংশের উন্নতির জন্য নাগ পুজো করা উচিত।

এদিন কী করবেন না

এদিন জমি খুড়তে নেই। মনে করা হয় সাপ বা নাগ জমির ভিতরে বাস করেন। ফলে জমি খুড়লে তাঁদের ক্ষতি হতে পারে।

নাগ পঞ্চমীর দিন কৃষকদের জমিতে লাঙল চালাতে নেই।

প্রচলিত ধারণা অনুযায়ী সুচের মধ্যে সুতো পরানো, কাঁচি বা ছুরি দিয়ে সবজি কাটার কাজও করা উচিত নয়।

নাগ ও সাপকে দুধ অর্পণ করুন, তবে পান করাবেন না। জীব হত্যা করবেন না এবং সাপের ক্ষতি করবেন না।