প্রতিবেশী ২ ‘দাদু’র যৌন লালসার শিকার নাবালিকা

প্রতিবেশী ২ ‘দাদু’র যৌন লালসার শিকার নাবালিকা

ফের লালসার শিকার নাবালিকা। এবার বছর ১৩-এর এক ছাত্রীকে লাগাতার যৌন নির্যাতনের অভিযোগ উঠল প্রতিবেশী এক বৃদ্ধ ও এক প্রৌঢ়ের বিরুদ্ধে। ঘটনাস্থল খাস কলকাতার হরিদেবপুর। ইতিমধ্যেই অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। জানা গিয়েছে, ধৃতদের ‘দাদু’ বলে ডাকত ওই নাবালিকা।

সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে প্রায়ই নির্যাতিতাকে বাড়িতে ডেকে পাঠাতো ধৃত মুকেশ্বর মণ্ডল ও অজিত মণ্ডল। লাগাতার যৌন নির্যাতন করত সেখানেই। কাউকে জানালে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিত কিশোরীকে। স্বাভাবিকভাবেই প্রাণের ভয় ও লজ্জায় কাউকে কিছু জানায়নি নির্যাতিতা।

সম্প্রতি অসুস্থ হয়ে পড়ে সে। তখনই সন্দেহ হওয়ায় মা তাকে জিজ্ঞেসা করতে থাকেন যে কী হয়েছে। এক পর্যায়ে কান্নায় ভেঙে পড়ে নাবালিকা। মাকে পুরো ঘটনাটি জানায় সে। এরপরই হরিদেবপুর থানার দ্বারস্থ হন নির্যাতিতার মা।ওই বধূর অভিযোগ, বিভিন্ন অছিলায় তাঁর মেয়েকে নিজেদের বাড়িতে ডেকে পাঠাত অভিযুক্তরা।

দিনের পর দিন অত্যাচার করত। খুনের হুমকিও দিত। মেয়ে লজ্জা ও ভয়ে দীর্ঘদিন কিছু বলতে পারেনি। পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযোগ পাওয়া মাত্রই অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের জেরা করা চলছে। অভিযুক্তদের কীর্তি ফাঁস হতেই চক্ষুচড়কগাছ স্থানীয়দের। ধৃতদের কঠোরতম শাস্তির দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।