এবার বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন রেস্তরাঁ স্টাইল সেজুয়ান চিকেন

এবার বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন রেস্তরাঁ স্টাইল সেজুয়ান চিকেন

আজবাংলা      ভোজনরসিক বাঙালির চিনা খাবারের প্রতি গভীর টান। কলকাতার রাস্তায় এক পা-দু’পা এগোলেই চোখে পড়বে চাইনিজ রেস্তরাঁর অজস্র ঠিকানা। সেখানে মিলবে এমন সব বাহারি খানা যা হয়েতো চিনেও মেলা ভার! ফ্রায়েড রাইস, চিলি চিকেন, হংকং চিকেন, মাঞ্চুরিয়ান গ্রেভিতে ফিশ কিংবা চিকেন বাঙালির রসনাতৃপ্তির তালিকায় এ সব সহজেই জায়গা করে নিতে পারে।

তবে এ সবের মাঝে ঝাল ভালবাসা ভোজনরসিকের মনে আর একটি চাইনিজ পদ বেশ স্থায়ী জায়গা করে নিয়েছে। সেজুয়ান চিকেন। ছোট-বড় সব চাইনিজ রেস্তরাঁতেই মিলবে টক-ঝাল-মিষ্টি জিভে জল আনা এই পদটি।রেস্তরাঁ স্টাইল সেজুয়ান চিকেন এখন বাড়িতেই বানিয়ে চমকে দিতে পারেন পরিবারের সকলকে। এই রেসিপির মূল কায়দা হল সেজুয়ান সস বানানোয়।

খানিকটা বেশি করে সেজুয়ান সস বাড়িতে এয়ার টাইট কন্টেনারে বানিয়ে রাখলে শুধু সেজুয়ান চিকেনই নয় বানিয়ে ফেলতে পারেন সেজুয়ান রাইস, সেজুয়ান ফিশের মতো হরেক রকম চিনা পদ।আপনার জন্য রইল সেজুয়ান চিকেন রেসিপির সুলুকসন্ধান যা এই উৎসবের আবহে পরিবারের খুদে থেকে বড় সবার পাতে আনবে চমক ও রসনায় আনবে আনন্দ।  

প্রণালী:

সস তৈরির সমস্ত উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে একটা ফাইন পেস্ট বানিয়ে ফেলুন। এর পর একটা পাত্রে চিকেন কিউব নিয়ে একে একে ডিম, গোলমরিচ গুঁড়ো, রসুন বাটা, সোয়া সস, ভিনিগার, নুন মিশিয়ে ভাল করে ম্যারিনেট করে আধ ঘণ্টা ফ্রিজে রাখুন।

ফ্রিজ থেকে বার করে ময়দা ও কর্ণফ্লাওয়ার দিয়ে মেখে নিন। এরপর কড়াইতে বেশ অনেকখানি তেল গরম করে নিয়ে চিকেনের টুকরো গুলি পকোড়ার মতো ভেজে তুলে রাখুন। এ বার একটা ননস্টিক প্যানে তেল দিয়ে ভাল করে তাতিয়ে নিন।

চিনা রান্নার ক্ষেত্রে বেশ জরুরি এই কাজটি। গরম তেলে সব সব্জি একসঙ্গে দিয়ে একটু সতে করে নিন। এর পর বানিয়ে রাখা সস যোগ করুন। ভাল করে নাড়াচড়া করুন। সামান্য জল দিন। এর পর জল গুলে রাখা কর্ন ফ্লাওয়ার ঢেলে দিন প্যানে। গ্রেভি একটু ঘন হয়ে এলে ভেজে রাখা চিকেন যোগ করুন। একটু টস করেই গ্যাস বন্ধ করে দিন। উপর থেকে  পেঁয়াজ পাতা কুচি ছড়িয়ে পরিবেশন করুন রেস্তরাঁ স্টাইল সেজুয়ান চিকেন।