ওলার ইলেকট্রিক স্কুটার বুকিংশুরু হতে চলেছে, জেনে নিন বিশদে!

ওলার ইলেকট্রিক স্কুটার বুকিংশুরু হতে চলেছে, জেনে নিন বিশদে!

 বুকিং শুরু হল ওলা (Ola) ইলেকট্রিক স্কুটারের। স্কুটারটি বাজারে আনছে ওলা-র অন্য একটি শাখা সংস্থা। যার নাম ওলা ইলেকট্রিক মোবিলিটি (Ola Electric Mobility)। ৪৯৯ টাকা দিয়ে ওই ইলেকট্রিক স্কুটার বুকিং করতে পারবেন ইচ্ছুকরা। এবং পরে যদি স্কুটারটি কেনার ইচ্ছে না থাকে তাহলে ৪৯৯ টাকা ফিরিয়ে দেওয়া হবে সংস্থার তরফে। যাঁরা এখন থেকে বুকিং করবেন তাঁরা প্রায়োরিটি ডেলিভারি পাবেন। কবে ওই স্কুটারটি বাজারে আসছে সে বিষয়ে নির্দিষ্ট কোনও তথ্য না পাওয়া গেলেও সূত্র মাধ্যমে খবর পাওয়া গিয়েছে এই মাসের শেষের দিকে লঞ্চ হতে পারে ওলা ইলেকট্রিক স্কুটার।

ইতিমধ্যে ব্যাঙ্ক অফ বরোদা (Bank of Baroda) এবং ওলার মধ্যে ১০ বছরের একটি চুক্তি হয়েছে। ওই চুক্তির মাধ্যমে ৭৪৫.৫০ কোটি টাকার বিনিয়োগ করা হয়েছে ওলার ইলেকট্রিক স্কুটারের হাব তৈরির জন্য। কী ভাবে বুকিং করা যাবে? ওলা ইলেকট্রিক স্কুটার বুকিং করার জন্য ওলা ইলেকট্রিক পোর্টালে যেতে হবে। এবং সেখানে বুকিং করার জন্য যাবতীয় পদ্ধতির কথা জানানো হয়েছে। যদিও ওই স্কুটারটির কত দাম ধার্য করা হয়েছে সে বিষয়ে সংস্থার তরফে কিছু জানানো হয়নি।

এদিকে বুকিং শুরু হতেই বেশ কিছু সমস্যার সম্মুখীন হয় ওলা বুকিং ওয়েবসাইটি। কিন্তু বর্তমানে সব সমস্যার সমাধান করা হয়েছে। এবিষয়ে ওলার চেয়ারম্যান ও গ্রুপ CEO ভবীশ আগরওয়াল জানিয়েছেন, 'আমরা আজ যে মুহূর্তে ইলেকট্রিক গাড়ির বুকিং নেওয়া শুরু করলাম সেই মুহূর্ত থেকে ভারতে ইলেকট্রিক স্কুটারের বিপ্লব শুরু হয়ে গেল। এই গাড়ির কর্মক্ষমতা, প্রযুক্তি এবং ডিজাইন এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যা যানবাহনের গতিশীলতাকে দীর্ঘস্থায়ী করবে।'

ইতিমধ্যে নিজের ব্যক্তিগত Twitter হ্যান্ডেল থেকে বেশ কয়েকটি ছবি ট্যুইট করেছে ভবীশ আগরওয়াল। যাতে করে সাধারণ মানুষ আরও বেশি করে বুকিং করেন সেকারণেই আগ্রহ বাড়াতে তাঁর এই ট্যুইট। ২০১৮ সালে এই প্রজেক্টটি শুরু করেছিল ওলা। সে সময় স্থানীয় স্টার্টআপ সংস্থা ভোগোর মাধ্যমে ৭৪৫.৫০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছিল। এর পর এপ্রিল মাসে ওলার তরফে অন্য একটি প্রোজেক্টের কথা জানানো হয়। সেটি হল ওলা হাইপারচার্জার নেটওয়ার্ক (Ola Hypercharger Network)। এই প্রকল্পের মাধ্যমে প্রায় ৪০০টি শহরে ১ লাখ টু-হুইলার চার্জিং পয়েন্ট বসানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।