সঙ্কটে ভারতের পাশে থাকার আশ্বাস বাইডেনের, জানাল হোয়াইট হাউস

সঙ্কটে ভারতের পাশে থাকার আশ্বাস বাইডেনের, জানাল হোয়াইট হাউস

ভারতের কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে এ বার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে ফোনে কথা বললেন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। সোমবার রাতে দু’দেশের শীর্ষনেতার সঙ্গে কথা হয়েছে বলে সরকারি সূত্রের খবর। আলোচনায় আমেরিকার কোভিড পরিস্থিতির বিষয়টিও ওঠে এসেছে বলে জানিয়েছেন মোদী। রবিবারই মোদী সরকারকে এ দেশে কোভিড টিকার কাঁচামাল সরবরাহের আশ্বাস দিয়েছিলেন বাইডেন। তার পরের দিনই এ দেশের করোনা সঙ্কট কথা হল মোদী-বাইডেনের।

এর আগে ভারতের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ), জার্মানি, ফ্রান্স-সহ বিশ্বের একাধিক দেশ। সোমবার বাইডেনের সঙ্গে তাঁর আলোচনা ফলপ্রসূ হয়েছে বলে জানিয়েছেন মোদী। টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘আমেরিকার প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আলোচনা ফলপ্রসূ হয়েছে। দু’দেশের কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে আমাদের বিস্তারিত ভাবে আলোচনা হয়েছে। ভারতের দিকে আমেরিকা সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য প্রেসিডেন্ট বাইডেনকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি’।

এ দিকে হোয়াইট হাউস থেকে প্রকাশিত একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে  আমেরিকার মতোই করোনার ধাক্কায় ভারতের পরিস্থিতিও বেসামাল। এই আবহে সোমবার রাতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে সহযোগিতায় আশ্বাস দিয়েছেন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। দু’দেশের শীর্ষনেতার মধ্যে আলোচনায় ভারতের কোভিড রোগীরা যে শোচনীয় অবস্থায় রয়েছেন, তা নিয়েও কথাবার্তা হয়েছে বলে জানিয়েছে হোয়াইট হাউস।

করোনা টিকার কাঁচামাল সরবরাহ করার ব্যাপারে ভারতকে রবিবারই আশ্বাস দিয়েছিল আমেরিকা। তার এক দিন পর সোমবার বাইডেন জানিয়েছেন যে এ দেশের করোনা রোগীদের চিকিৎসায় আপৎকালীন সহযোগিতাও করবে তাঁর প্রশাসন। প্রসঙ্গত, রবিবার আমেরিকার জাতীয় পরামর্শদাতা জেক সালিভান জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভালকে জানিয়েছিলেন যে সে দেশ থেকে ভারতে করোনা টিকার কাঁচামাল অবিলম্বে সরবরাহ করা হবে। পাশাপাশি, করোনার পরীক্ষায় র‌্যাপিড ডায়াগনস্টিক কিট, ভেন্টিলেটর এবং পিপিই-ও ভারতে পাঠানোর বন্দোবস্ত করা হবে।