অনলাইনে শুক্রাণু কিনে গর্ভবতী তরুণী! জন্ম দিলেন ফুটফুটে সন্তানের

অনলাইনে শুক্রাণু কিনে গর্ভবতী তরুণী! জন্ম দিলেন ফুটফুটে সন্তানের

ইন্টারনেটে কী না মেলে! রান্নার রেসিপি থেকে গেরস্থালির খুঁটিনাটি, আবার পড়াশোনার খোঁজখবর থেকে খেলাধুলোর প্রশিক্ষণ, ঘরে বসে কী না মিলছে ইন্টারনেটের দৌলতে। এবার সন্তানধারণেও সাহায্য করছে সেই ইন্টারনেটই। সঙ্গী ছাড়াই বাড়ি বসে মা হওয়ার সহজ উপায় বাতলে দিচ্ছে সে। দিচ্ছে সন্তান উপহার। ভাবছেন রূপকথার গল্প বলছি? একেবারেই নয়, সম্প্রতি ইন্টারনেটের সাহায্যেই মা হলেন ব্রিটেনের (Britain) এক মহিলা।

ব্রিটেনের বাসিন্দা স্টেফনি টেলর। বয়স ৩৩। দ্বিতীয় সন্তান নিতে চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু তার জন্য নতুন কোনও সম্পর্কে জড়াতে চাননি তিনি। এমন পরিস্থিতিতে সন্তানধারণে তাঁর ত্রাতা হয়ে দাঁড়ায় ইন্টারনেট।  স্টেফনি টেলর অনলাইনে একটি অ্যাপের হদিশ পান। সেই অ্যাপ থেকেই শুক্রাণু এবং শুক্রাণু প্রতিস্থাপনের একটি যন্ত্র কেনেন।

যৌন সম্পর্ক ছাড়া কীভাবে ডিম্বাণুর সঙ্গে শুক্রাণুর মিলন সম্ভব, তাও ওই অ্যাপ থেকে শিখে নেন তিনি। বাড়িতে বসেই শুক্রাণু গর্ভে স্থাপন করেন। এবার প্রশ্ন উঠতেই পারে, কেন কোনও গর্ভধারণ কেন্দ্রে না গিয়ে বাড়িতে গর্ভধারণ করেছেন? এ প্রসঙ্গে স্টেফনি জানিয়েছেন, গর্ভধারণকেন্দ্রগুলিতে খরচ অনেক বেশি। সেই খরচ স্টেফনি সামলাতে পারবেন না।

তাই ইন্টারনেটই ভরসা। স্টেফনি জানিয়েছেন, 'জাস্ট এ বেবি অ্যাপ' থেকে কিনেছিলেন প্রজননের প্রয়োজনীয় উপকরণ। সম্তানধারণের বিষয়টি এক বন্ধুকে জানাতে তিনিই স্টেফনিকে অনলাইনে শুক্রাণু কেনার অ্যাপের সন্ধান দেন। ওই অ্যাপে শুক্রাণু দিতে ইচ্ছুক ব্যক্তির পরিবার থেকে শুরু করে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সমস্ত তথ্যই পাওয়া যায়। স্টেফনি জানিয়েছেন, সেখান থেকেই নিজের সন্তানের জন্য শুক্রাণুদাতা খুঁজে নেন তিনি। ১০ মাস পর জন্ম নেয় ফুটফুটে এক সন্তান।