স্থায়ীকরণের দাবিতে ফের মমতার পুরুলিয়ার সভায় বিক্ষোভ

স্থায়ীকরণের দাবিতে ফের  মমতার  পুরুলিয়ার সভায় বিক্ষোভ

ফের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভায় বিক্ষোভ। মঙ্গলবার মুখ্যমন্ত্রীর সভায় নিজেদের দাবিদাওয়া নিয়ে সরব হলেন স্বনির্ভরগোষ্ঠীর প্রশিক্ষকরা। তাঁদের ধমকে চুপ করানোর চেষ্টা করেন মমতা। পরে যদিও নমনীয় গ্রহণ করেন তাঁদের দাবিসনদ। এদিন মমতার সভায় স্থায়ীকরণের দাবি নিয়ে হাজির হন স্বনির্ভর গোষ্ঠীর প্রশিক্ষকরা।

মঞ্চের সামনে থেকে লাগাতার নিজেদের দাবি সোচ্চারে জানাতে থাকেন তাঁরা। এতে বিরক্ত হয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, আমার সমস্ত সভায় পরিকল্পনা করে কিছু লোককে পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে। সাত আট জন মিলে মিটিংটা নষ্ট করে দিচ্ছে। এর পর মুখ্যমন্ত্রী দাবি করেন, সিপিএমের জমানায় যে বন্দোবস্ত হয়েছিল তাই এতদিন ধরে চলে আসছে।

তার পর বলেন, এদের পাঠিয়েছে বিজেপি আর সিপিএম। এমনকী বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ করারও হুঁশিয়ারি দেন তিনি। দলীয় নেতাদের বলেন, পরের সভা থেকে যেন এরকম না হয় তা দেখতে। বক্তব্যের শেষের দিকে যদিও কিছুটা নমনীয় হন তৃণমূলনেত্রী।

দলীয় কর্মীদের বিক্ষোভকারীদের থেকে দাবিসনদ সংগ্রহের নির্দেশ দেন। বলেন, সবারটাই দেখার চেষ্টা করেন তিনি। আশ্বাস দেন, স্বনির্ভর গোষ্ঠীর প্রশিক্ষকদের অবসরের বয়স ৬০ বছর করে দেবেন। সঙ্গে বলেন, অবসরকালীন কিছু সুযোগ সুবিধা দেওয়ারও চেষ্টা করবেন। কিন্তু স্থায়ীকরণের প্রতিশ্রুতি দিতে পারবেন না তিনি। উল্লেখ্য, গতকাল নন্দীগ্রামেও তাঁর সভায় বিক্ষোভ হয়েছিল। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, সরকারি কর্মীরাই যেখানে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন সেখানে মুখ্যমন্ত্রী এর পিছনে বিজেপির হাত দেখছেন।