বিহার বিধানসভা ভোটের সময় রাহুল পিকনিকে মজেছিলেন, দাবি আরজেডি-র

বিহার বিধানসভা ভোটের সময় রাহুল পিকনিকে মজেছিলেন, দাবি আরজেডি-র

সদ্য সমাপ্ত বিহার বিধানসভা নির্বাচনে খারাপ ফল করার জন্য এই প্রথম প্রকাশ্যে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে মুখ খুলল মহাগঠবন্ধন শরিক আরজেডি। সমালোচনার কোপ থেকে বাদ পড়লেন না রাহুল গান্ধীও।

রবিবার দলের বর্ষীয়ান নেতা শিবানন্দ তিওয়ারি শতাব্দী প্রাচীন দলের বিরুদ্ধে নির্বাচনে গা-ছাড়া মনোভাবের অভিযোগ তোলেন। মুখস্পষ্ট বক্তা হিসেবে পরিচিত তিওয়ারি কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীকেও ছাড় দেননি। তাঁর অভিযোগ, বিহার নির্বাচনের সময় অনুপস্থিত থেকে বোন তথা উত্তর প্রদেশের দায়িত্বে থাকা এআইসিসি সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বঢরার শিমলার বাড়িতে ছুটি কাটাতে ব্যস্ত ছিলেন রাহুল।

 

তিন দফার বিহার বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের সংগ্রহে এসেছে ৭০টির মধ্যে মাত্র ১৯টি আসন। এর জেরে আরজেডি নেতৃত্বাধীন মহাজোটের অন্দরে গুঞ্জন শুরু হয় যে, কংগ্রেসের খারাপ ফলের কারণেই এনডিএ-র কাছে স্বল্প ব্যবধানে হার স্বীকার করতে হয়েছে।

তিওয়ারির অভিযোগ, ‘প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর চেয়ে বয়সে অনেক ছোট রাহুল গান্ধী। কিন্তু রাহুলের চেয়ে অনেক বেশি সংখ্যক প্রচারসভা করেছেন মোদী। আসন বণ্টনের সময় কংগ্রেস ৭০টি আসন চেয়ে নিয়েছিল। কিন্তু তার জন্য ৭০টি প্রচারসভাও তারা করেনি।

এতগুলি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও বিহার বিধানসভা নির্বাচনে যথেষ্ট চেষ্টা করেনি কংগ্রেস। নির্বাচনের সময় রাহুল শিমলায় তাঁর বোনের বাড়িতে পিকনিক করছিলেন। এ ভাবে কি কোনও দল চালানো যায়? দল পরিচালনায় কংগ্রেসের গুরুত্বহীন প্রচেষ্টার জেরে ইতিমধ্যেই অভিযোগ উঠেছে যে প্রকারান্তরে বিজেপি-কেই তারা সাহায্য করেছে।’