বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টিপাত, জেনে নিন আবহাওয়ার খবর

বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টিপাত, জেনে নিন আবহাওয়ার খবর

নববর্ষ দোরগোড়ায়। প্রস্তুতিতে মেতে বাঙালি। কিন্তু, পয়লা বৈশাখের দিনেই কি বাংলায় বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা? আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টিপাত হতে পারে। কলকাতা সহ একাধিক জেলায় রয়েছে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা।  হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টিপাত হতে পারে নদিয়া, মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং পূর্ব মেদিনীপুরে।

এদিকে আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, বুধবার থেকে বৃষ্টিপাত হবে বীরভূম, মুর্শিদাবাদে। যদিও এদিন দক্ষিণবঙ্গের অন্যান্য জেলাগুলিতে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা নেই বলেই জানা যাচ্ছে।  এদিন কেমন থাকবে কলকাতার আবহাওয়া (Kolkata Weather Update Today)? আজ কলকাতায় বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা নেই। আপেক্ষিক আদ্রতা অস্বস্তি বাড়াবে।

গতকাল কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং আজকের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৭.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিন আবহাওয়ার বড় কোনও পরিবর্তন নেই। তবে সামান্য বাড়তে পারে তাপমাত্রার পারদ।  দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে এদিন বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা নেই। পশ্চিমের জেলাগুলিতে তাপমাত্রার পারদ সামান্য বাড়বে।

আসানসোলে মঙ্গলবার উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সেক্ষেত্রে আসানসোলের তাপমাত্রা কেমন থাকবে? তা নিয়ে বিস্তর প্রশ্ন উঠছে। হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, আসানসোলে আজ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা নেই। আকাশ থাকবে পরিষ্কার। সেখানে সামান্য বাড়তে পারে তাপমাত্রা। উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে গত এক সপ্তাহ ধরেই বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিপাত চলছে।

দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার ও জলপাইগুড়ি-এই জেলাগুলিতে আগামী ২৪ ঘণ্টা বিক্ষিপ্তভাবে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। এই জেলাগুলিতে তাপমাত্রা বাড়়বে না আপাতত, জানা গিয়েছে এমনটাই। আগামীি পাঁচ দিনে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে আবহাওয়ার বিশেষ কোনও বদল নেই বলেই জানা গিয়েছে। উল্লেখ্য, বঙ্গোপসাগর থেকে দক্ষিণ-পশ্চিম বাতাসের উপর ভর করে রাজ্যে প্রচুর জলীয় বাষ্প প্রবেশ করতে চলেছে।

এছাড়াও উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলিতে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। রাজস্থান, পঞ্জাব ,হরিয়ানা, দিল্লি ও উত্তরপ্রদেশে চলতে পারে তাপপ্রবাহ, জানা গিয়েছে এমনটাই। এই বছর রাজ্যেও রেকর্ড গরম পড়তে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছেন আবহাওয়াবিদরা। একইসঙ্গে বাংলার দিকে ধেয়ে আসতে পারে একাধিক সাইক্লোনও, দাবি ভূতত্ত্ববিদ সুজীব করের।