ইসলামিক সৌদি আরবের স্কুলে পড়ানো হবে রামায়ণ, মহাভারত

ইসলামিক সৌদি আরবের স্কুলে পড়ানো হবে রামায়ণ, মহাভারত

গোটা বিশ্বেই প্রাচীন ভারতীয় সংস্কৃতি (Indian Cultuire) নিয়ে চর্চা হয়। আধুনিক জীবনযাপনে যোগাভ্যাস বা আয়ুর্বেদের গ্রহণযোগ্যতা আরও বাড়ছে। অনেক দেশের স্কুলে এই বিষয়গুলি পড়ানো হয়। এবার ভারতীয় সংস্কৃতি, ইতিহাস, যোগ বা আয়ুর্বেদ নিয়ে চর্চা হবে সৌদি আরবের স্কুলেও। তেমনই পরিকল্পনা করেছেন সৌদি আরবের প্রিন্স মহম্মদ বিন সলমন।

প্রিন্স মহম্মদ বিন সলমনের পরিকল্পনায় স্কুল শিক্ষা পাঠ্যসূচিতে বেশ কিছু পরিবর্তন আনা হচ্ছে। আর এই পরিকল্পনার নাম দেওয়া হয়েছে 'ভিশন ২০৩০'। এতে শুধু ভারত নয় বিভিন্ন দেশের ইতিহাস, সংস্কৃতি সম্পর্কে পড়ুয়াদের একটি ধারণা দেওয়া হবে। পরিকল্পনা অনুযায়ী ইতিমধ্যেই সৌদি আরবের স্কুল পাঠ্যসূচিতে ঢুকেও পড়েছে রামায়ণ এবং মহাভারত। সেই সঙ্গে যোগ এবং আয়ুর্বেদ সম্পর্কেও বেশ কিছু বিষয় পড়ানো হবে।

শুধু তাই নয় ভিশন ২০৩০-এ ইংরেজি ভাষা শিক্ষাও বাধ্যতামূলক করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। মনে করা হচ্ছে এই পরিকল্পনার হাত ধরে সৌদি আরবের শিক্ষা ব্যবস্থার দৃষ্টিভঙ্গিতে আমূল পরিবর্তন হতে পারে। স্কুলের বইয়ের পাতার ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন একাধিক নেটিজেন।

সেখানে দেখা যাচ্ছে, বিভিন্ন দেশের সংস্কৃতি কী ভাবে ইতিমধ্যেই ঢুকে পড়েছে সৌদি আরবের পড়ুয়াদের বইপত্রে। সেখানে হিন্দুধর্ম, বৌদ্ধধর্ম, মহাভারত এবং ধর্মের মতো বিষয় অন্তর্ভূক্ত হয়েছে। এক নেটিজেন জানিয়েছেন, সৌদি আরবে বসে মেয়েকে এই সব বিষয় পড়াতে তিনি বেশ আনন্দই পাচ্ছেন।