ঋষভ পন্থ ভাঙলেন ৭২ বছরের রেকর্ড , ছাপিয়ে গেলেন ধোনিকেও

ঋষভ পন্থ ভাঙলেন ৭২ বছরের রেকর্ড , ছাপিয়ে গেলেন ধোনিকেও

টেস্ট ক্রিকেটেও ক্রমশ উন্নতি করে চলেছেন ঋষভ পন্থ (Rishabh Pant)। অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, ইংল্যান্ডের মতো কঠিন সফরে শতরান করেছেন। এবার আরও একটা নজির তাঁর নামের পাশে। ইংল্যান্ডের মাটিতে সফরকারী দলের উইকেটরক্ষক হিসেবে এক ম্যাচে সর্বাধিক রানের রেকর্ড। ভারতীয়দের মধ্যে এই রেকর্ড ছিল মহেন্দ্র সিং ধোনির দখলে। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে এজবাস্টন টেস্টে সেই রেকর্ডও ছাপিয়ে গেলেন ঋষভ পন্থ।

এজবাস্টনে দ্বিতীয় ইনিংসে ৬ রান করতেই ধোনিকে পেরিয়ে যান। এজবাস্টনেই ১৫১ রান করে নজির গড়েছিলেন ধোনি। ২০১১ সফরে এজবাস্টনে দুই ইনিংসে ধোনি করেছিলেন ৭৭ এবং অপরাজিত ৭৪। সফরকারী উইকেটরক্ষকদের মধ্যে ১৯৫০ সালে রেকর্ড গড়েছিলেন ক্লাইড ওয়ালকট। ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই ক্রিকেটার প্রথম ইনিংসে করেছিলেন মাত্র ১৪ রান। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে অপরাজিত ১৬৮ রান করেন। সব মিলিয়ে ১৮২। ঋষভ পন্থ এজবাস্টনে প্রথম ইনিংসে করেছিলেন ১৪৬ রান। দ্বিতীয় ইনিংসে অর্ধশতরান করে খেলছেন। সবমিলিয়ে প্রায় ২০৩ রান।

সালটা ছিল ২০০৫। ফয়জলাবাদে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ৯৩ বলে সেঞ্চুরি করেছিলেন মাহি। যা কোনও ভারতীয় উইকেটকিপারের করা দ্রুততম টেস্ট সেঞ্চুরি ছিল এতদিন। কিন্তু, এজবাস্টনের ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৮৯ বলে শতরান করে ১৭ বছরের সেই রেকর্ড ভেঙে দিলেন পন্থ। এই ইনিংসে ১১১ বলে ১৪৬ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। ১৯টি চার ও ৪টি ছয় দিয়ে সাজানো ইনিংস। এর পাশাপাশি এজবাস্টনে টেস্টে সবথেকে দ্রুততম শতরানও এটি।

কেভিন পিটারসেনের রেকর্ডও ভেঙে দিয়েছেন পন্থ। এটি ইংল্যান্ডে টেস্টে দ্বিতীয় সেঞ্চুরি পন্থের। সার্বিকভাবে তিন নম্বর। অপরটি আমদাবাদে। এই মুহূর্তে পন্থের ঝুলিতে বিদেশের মাটিতে ৪টি টেস্ট সেঞ্চুরি । শুধু তা-ই নয়, টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে কনিষ্ঠতম উইকেটকিপার-ব্যাটার হিসাবে ২০০০ রানের গণ্ডি স্পর্শ করেছেন ভারতীয় এই ক্রিকেটার।

এজবাস্টনে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে পঞ্চম ও শেষ টেস্ট ম্যাচ চলাকালীন এই ল্যান্ডমার্ক স্পর্শ করেন ঋষভ। ইনিংসের ৫১ তম ওভারে মিড উইকেট বরাবর চার মেরে ২ হাজার রানে পৌঁছে যান তিনি। শুক্রবার তিনি যখন ব্যাট করতে নামেন, ৭১ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছে ভারত। একে রোহিত শর্মা, কে এল রাহুলরা নেই।

তার ওপর ফিরে গিয়েছেন বিরাট কোহলি, চেতেশ্বর পূজারা। বল হাতে আগুন ঝরাচ্ছেন জেমস অ্যান্ডারসন, স্টুয়ার্ট ব্রড, ম্যাথু পটসরা। ক্রিজে গিয়ে পাল্টা মারের কৌশল নেন পন্থ। আগ্রাসী ব্যাটিং যাঁর স্বভাবজাত। শেষ পর্যন্ত ১১১ বলে ১৪৬ রান করে জো রুটের বলে স্লিপে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন।