অবশেষে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ফিরলেন শচীন তেণ্ডুলকর

অবশেষে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ফিরলেন শচীন তেণ্ডুলকর

অবশেষে সুস্থ শচীন তেণ্ডুলকর (Sachin Tendulkar)। দীর্ঘ ছ'দিন পর বৃহস্পতিবারই হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন মাস্টার ব্লাস্টার। স্বাভাবিকভাবেই এমন খবরে স্বস্তিতে তাঁর অনুমরাগীরা। রায়পুরে ওয়ার্ল্ড রোড সেফটি সিরিজ শেষ হওয়ার পর গত ২৭ মার্চ করোনা (Covid-19) আক্রান্ত হয়েছিলেন শচীন। প্রথমে হোম আইসোলেশনেই ছিলেন তিনি।

কিন্তু গত শুক্রবার সতর্কতাস্বরূপ চিকিত্‍সকদের পরামর্শে হাসপাতালে ভরতি হন। এরপর ছোটবেলার বন্ধু অতুল রানাডে জানিয়েছিলেন, শচীনের শারীরিক পরিস্থিতি নিয়ে ভক্তদের চিন্তার কোনও কারণ নেই। আরও ভাল চিকিত্‍সার জন্যই তাঁকে হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। শচীনের শরীরে করোনার উপসর্গ ছিল এবং তাই এই সিদ্ধান্ত। প্রয়োজনীয় সমস্ত চিকিত্‍সার সরঞ্জাম সেখানে রয়েছে। সেকারণেই হাসপাতালে রাখা হয়েছে তাঁকে।

অবশেষে করোনাকে জয় করে মুম্বইয়ের বেসরকারি হাসপাতাল থেকে এদিন বাড়ি ফেরেন তিনি। বাড়ি ফিরেই টুইটারে লেখেন, 'একটু আগেই হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরলাম। তবে আপাতত আইসোলেশনে বিশ্রামেই থাকতে হবে। আপনাদের শুভ কামনা ও ভালবাসার জন্য অনেক ধন্যবাদ। সত্যিই আমি আপ্লুত।' এরপরই হাসপাতালের দুর্দান্ত পরিষেবার জন্য চিকিত্‍সকদের ধন্যবাদ জানান শচীন।

প্রসঙ্গত, রোড সেফটি সিরিজে অংশ নেওয়া একাধিক ক্রিকেটার করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। এই রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজ শুরুর পর করোনা (Corona Virus) সংক্রমণের প্রভাবেই বেশ কিছুদিন বন্ধ রাখতে হয়েছিল। পরে করোনার প্রকোপ কমতেই তা ফের শুরু করা হয়ে। আর তাতেই মিলছে বড় বিপদের ইঙ্গিত।

ইউসুফ পাঠান, এস বদ্রীনাথের পর সংক্রমিতদের তালিকায় যুক্ত হন ইরফান পাঠানও (Irfan Pathan)। তাঁরা হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকলেও অতিরিক্ত সতর্কতা নিয়ে শচীনকে হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছিল। এখন তিনি অনেকটাই সুস্থ।