জাফরান শুধু রান্নার স্বাদ এবং রং-ই বাড়ায় না , জাফরানের রয়ে হাজারও গুনাগুন 

জাফরান শুধু রান্নার স্বাদ এবং রং-ই বাড়ায় না , জাফরানের রয়ে হাজারও গুনাগুন 

জাফরান এক প্রকারের মশলা যা সাধারণভাবে "জাফরান ক্রোকাস" নামে পরিচিত। জাফরন ফুলের গাঢ় লাল রঙের এবং শৈলীর গর্ভমুণ্ড, যাকে জাফরন আঁশ বলা হয়। সংগ্রহ এবং শুকানোর মাধ্যমে জাফরন মশলা তৈরি করা হয় যা প্রধানত খাবারের স্বাদ এবং রঙের জন্য ব্যবহার করা হয়। জাফরান শুধুমাত্র খাবারের স্বাদ এবং রং-ই বাড়ায় না,  এর আরও অনেক গুণাগুণ রয়েছে। জাফরানে রয়েছে অ্যান্টি ইনফ্ল্যামেটরি, অ্যান্টি ফাঙ্গাল, ম্যাংগানিজ, য়া ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখে। এর মধ্যে উপস্থিত রয়েছে ভিটামিন সি, যা শরীরকে ইনফেকশন বা সংক্রমণের হাত থেকে রক্ষা করে।  আসুন জাফরানের উপকারিতাগুলি জেনে নেওয়া যাক………

জাফরান ক্যান্সার প্রতিরোধক হিসাবে ভালো কাজ করে।জাফরানে রয়েছে একধরণের ক্যারোটিন থাকে যাকে ক্রোসিন বলা হয়। এটি আমাদের শরীরে বিভিন্ন ধরণের ক্যান্সার কোষ, যেমন লিউকোমিয়া, ওভারিয়ান কারসিনোমা, কোলন অ্যাডনোকারসিনোমা ইত্যাদি ধ্বংস করতে সাহায্য করে। জাফরানে থাকা ভিটামিন সি, যা শরীরকে ইনফেকশন বা সংক্রমণের হাত থেকে রক্ষা করে।

প্রত্যেক দিন ঘুমোতে যাওয়ার আগে এক গ্লাস দুধে এক চিমটে জাফরান মিশিয়ে খেলে আপনার ভাইটালিটি বাড়বে। অনেকেই ঘুমের সমস্যায় ভোগেন। সে ক্ষেত্রে রাতে ঘুমোতে  যাওয়ার আগে এক গ্লাস গরম দুধে সামান্য জাফরান মিশিয়ে খান, দেখবেন ঘুম ভালো হবে।জাফরানে থাকা অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, অ্যান্টি-ক্যানসার, অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি এবং অ্যান্টি-হাইপারলিপিডেমিক উপাদানগুলি গ্যাসের সমস্যা দূর 

গর্ভাবস্থার সমস্যা যতটা সম্ভব কম করতে এই সময় স্বাস্থ্যকর খাওয়া দাওয়ার দিকে বিশেষ নজর দেওয়া জরুরি। গর্ভাবস্থার বিভিন্ন সমস্যার মধ্যে প্রথমেই আসে মুড স্যুইং। জাফরান নিয়মিত খেলে গর্ভবতীদের ইমোশনাল আপ ডাউন অনেকটা নিয়ন্ত্রণে আসে।হবু মায়েদের শরীরে অনেক সময় নানা ধরনের ব্যাথা বেদনা। কোমরে, হাঁটুতে ক্র্যাম্প লেগেই থাকে।গর্ভাবস্থার এই ব্যাথা বেদনা নিয়ন্ত্রণে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করতে পারে জাফরান।  গর্ভাবস্থায় অনেক সময় মহিলাদের রক্তচাপ বেড়ে যায়।অল্প পরিমাণে জাফরান খেলে তা রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে।

শারীরিক দিক থেকে দুর্বল মেয়েদের জন্য জাফরান খুবই উপকারী। প্রত্যেক দিন এক চিমটে জাফরান দুধের সঙ্গে মিশিয়ে খেলে হরমোন উদ্দীপিত হয়।শারীরিক দুর্বলতা কাটিয়ে উঠতে এটি দারুণ কাজ দেয়।জাফরানে থাকা অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি উপাদান বাতের ব্যথা, জয়েন্টে ব্যথা, মাংসপেশির ব্যথা দূর করতে সাহায্য করে।