শনি ও রাহুর কুপ্রভাবে ভুগছেন? জীবনে সাফল্য আনতে এই কুঅভ্যাসগুলো ত্যাগ করুন

শনি ও রাহুর কুপ্রভাবে ভুগছেন? জীবনে সাফল্য আনতে এই কুঅভ্যাসগুলো ত্যাগ করুন

আজবাংলা  আমাদের প্রতি দিনের কিছু কুঅভ্যাস আমাদের জীবনে গ্রহের কুপ্রভাব নিয়ে আসে। তবে এই অভ্যাসগুলো সম্পর্কে অনেকেই জানে না, নিজের অজান্তেই এই ভুলগুলো করে ফেলেন অনেকে। প্রতি দিনের এই অভ্যাস আমাদের চরিত্র সম্পর্কে অনেক তথ্য জানান দেয়। আমাদের ভবিষ্যৎ কেমন হতে পারে, তাও জানা যায় আমাদের প্রতি দিনের অভ্যাস থেকে।

কোন অভ্যাসগুলো বদলালে জীবনে গ্রহের সুপ্রভাব আসতে পারে জেনে নিন—


• ঘরে পুজোর জায়গা সব সময় পরিষ্কার রাখতে হবে। এই জায়গা থেকে পজিটিভ এনার্জি নির্গত হয়। তাই যদি পুজোর জায়গা অপরিষ্কার থাকে, তা হলে গ্রহের কুপ্রভাব আপনার জীবনে পড়বেই। • ঘুম থেকে ওঠার পরও অনেকে বিছানা গোছান না। ঘুম থেকে বিছানা গুছিয়ে না উঠলে কর্ম জীবনে উন্নতিতে প্রচুর বাধা আসে।

• বাইরে থেকে এসে সঙ্গে সঙ্গে হাত, পা, মুখ ধুয়ে ফেলা উচিত। এরকমটা না করলে জানবেন আপনি নিজেই নিজের দুর্ভাগ্যকে বয়ে আনছেন।


• বাড়িতে গাছ রয়েছে, কিন্তু তাতে প্রতি দিন জল দেওয়া হয় না। এতে ভীষণ পরিমাণে গ্রহের কুপ্রভাবে পড়ে। প্রতি দিন গাছে জল দিলে জীবনে খুব একটা সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় না।


• বাইরে থেকে এসে জুতো এ দিক ও দিকে ফেলে রাখলে জানতে হবে জীবনে সমস্যা পদে পদে সৃষ্টি হতে চলেছে। এ রকম করলে মানুষের অসম্মানের পাত্র হতে হয় এবং শত্রু সংখ্যা বৃদ্ধি পায়।


• অনেকেই আছেন, যাঁরা বাথরুম ব্যবহার করার পর তা নোংরা রেখেই বেরিয়ে পড়েন। ভেজা জামা কাপড় ছড়িয়ে বাথরুমে ফেলে রাখেন। এই কুঅভ্যাস থাকলে কুণ্ডলীতে চন্দ্রের স্থান দুর্বল হতে থাকে। ভবিষ্যৎ গড়ার ক্ষেত্রে সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে।


• জুতোয় শব্দ করে হাঁটলে রাহুর কুপ্রভাবে পড়তে হয়। হাঁটার সময় যেন জুতোয় শব্দ না হয়, সে দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।


• খাওয়ার পর টেবিলে এঁটো বাসন ফেলে রাখার অভ্যাস অত্যন্ত খারাপ। এতে রাহু ও শনিদেবের কুনজরের শিকার হতে হয়।খাবার পর এঁটো বাসন সঙ্গে সঙ্গে তুলে নেওয়া উচিত।


• রাহু ও কালসর্প দোষের হাত থেকে মুক্তি পেতে বাড়িতে অতিথি এলে তাঁকে সবার প্রথম এক গ্লাস ঠান্ডা জল দিয়ে আপ্যায়ন করুন।