সুখবর, ৫ হাজার টাকা কমল সোনার দাম

সুখবর, ৫ হাজার টাকা কমল সোনার দাম

আজ বাংলা:  উৎসবের মরসুমে ফের সুখবর। বুধবার রেকর্ড হারে কমল সোনা ও রুপোর দাম। করোনার আতঙ্কের ফলশ্রুতিতে এক সময় লাফিয়ে বাড়ছিল সোনার দাম।


 যদিও এই মারণ ভাইরাসের ভ্যাকসিন আবিষ্কারের পরে লগ্নিকারীদের নজর একটু একটু করে ঘুরতে শুরু করেছে। যার ফলে গত দু'দিনের মতো বুধবার সকালেও এই ধাতুর দর নিম্নমুখী। একই ঘটনা রুপোর ক্ষেত্রেও।


জানা গিয়েছে, এদিন ভারতে বাজার খোলার পরে বেচাকেনায় এই দুই ধাতুর দাম ০.৫০ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে। যদিও বিশ্বজুড়ে সংক্রমণের ঘটনা বেড়ে চলায় সোনার প্রতি আগ্রহ একেবারে চলে যায়নি ব্যবসায়ীদের। যা এই ধাতুর দাম ধরে রাখতে সহায়ক ভূমিকা নিচ্ছে।

বুধবার সকালে এই দেশের মাল্টি-কমোডিটি এক্সচেঞ্জে সোনার ডিসেম্বর ফিউচার মূল্য ০.৩৯ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে। আর ফলে প্রতি ১০ গ্রাম সোনার দর দাঁড়িয়েছে ৫০ হাজার ৫৭০ টাকা। 

উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক সময়ে সোনার ডিসেম্বর ফিউচার মূল্য ৫৬ হাজার ৩৭৯ টাকায় পৌঁছে গিয়েছিল। তার তুলনায় এদিন সোনার মূল্য ৫ হাজার ৮০০ টাকারও বেশি হ্রাস পায়। 

বাজার বিশেষজ্ঞদের মতে, আজ MCX-এ সোনার সহায়ক মূল্য ৫০,৫০০ টাকা থেকে ৫০,৩০০ টাকার মধ্যে ঘোরাফেরা করতে পারে।অন্যদিকে সোনার পাশাপাশি এদিন রুপোর দামও কমেছে। সকালের বেচাকেনায় প্রতি কিলো রুপোর দাম ০.৫৫ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৬২,৯০২ টাকা। 

মঙ্গলবার বিশ্ব বাজারে সোনা ও রুপোর দর ছিল নিম্নমুখী। আন্তর্জাতিক প্রভাবে ভারতের বাজারেও গত পরপর দুই দিন সোনার মূল্য হ্রাস পায়।প্রসঙ্গত, দ্বিতীয় কোভিড ঢেউয়ের কবলে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। শুধু আমেরিকায় সংক্রমণের ঘটনা গত রবিবার ১১ মিলিয়নের সীমারেখা পার করে যায়।

.

এই সংকট মোকাবিলায় অবিলম্বে পদক্ষেপের পক্ষে সওয়াল করেছেন মার্কিন হবু প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের শীর্ষ উপদেষ্টরা। এদিকে, সংক্রমণের ঘটনা বৃদ্ধির ফলে সাধারণ মানুষ খরচের প্রতি রাশ টানবেন। যার ফলে আগামী দিনে মার্কিন মুলুকে আর্থিক বৃদ্ধির গতি ধীরে হতে পারে বলে মঙ্গলবার সম্ভাবনার কথা জানিয়েছেন ফেডারেল রিজার্ভের প্রধান।