সোনার দামে ৬০০০ টাকা হ্রাস, বছর শেষের আগে মধ্যবিত্তের মুখে হাসি

সোনার দামে ৬০০০ টাকা হ্রাস, বছর শেষের আগে মধ্যবিত্তের মুখে হাসি

আজ বাংলা: বছর শেষের আগে মঙ্গলবার বিপুল কমল সোনা ও রুপোর দাম। জানা গিয়েছে, আন্তর্জাতিক বাজারে সোনা ঘিরে লগ্নিকারীদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছে। 

আর যা স্বাভাবিকভাবে যার প্রভাব পড়েছে ভারতে। এই দেশের বাজারে সকালের বেচাকেনায় সোনার দামে (Gold Price Today) সামান্যই পরিবর্তন হয়েছে। তবে পতন ঘটেছে রুপোর দরে।

এদিন বেচাকেনায় ভারতের মাল্টি-কমোডিটি এক্সচেঞ্জে (MCX) সোনার ফেব্রুয়ারির ফিউচার মূল্য ০.১১ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে প্রতি ১০ গ্রামের দর দাঁড়ায় ৫০ হাজার ৬৭ টাকা। গত পাঁচ দিনের বেচাকেনায় সোনার দর ৫০ হাজার টাকা থেকে ৫০ হাজার ৫০০ টাকার মধ্যেই ঘোরাফেরা করেছে।

 

যদিও এর ঠিক উল্টো ছবি দেখা গিয়েছে রুপোর দরে। প্রসঙ্গত, বিগত আগস্ট মাসে ভারতের বাজারে নয়া শিখর স্পর্শ করেছিল সোনা এবং রুপো। সে সময় প্রতি ১০ গ্রাম সোনার দাম বাড়তে বাড়তে পৌঁছে গিয়েছিল ৫৬,২০০ টাকা। 


অন্যদিকে, রেকর্ড গড়ে প্রতি কিলো রুপোর দাম পৌঁছে যায় ৮০ হাজার টাকার দোরগোড়ায়। তার তুলনায় ১০ গ্রাম সোনালি ধাতুর দাম এখনও ৬,০০০ টাকার বেশি নীচে।
 ওয়াকিবহালমহল মনে করছে নতুন বছরে  সোনার দাম ছুঁতে পারে ৬৩,০০০ টাকা।  


এদিকে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন ২০২১ সাল সোনার জন্য খুব শুভ হতে চলেছে, কারণ সোনার দাম সমস্ত রেকর্ড ভেঙে দিতে পারে।

Commtrendz Risk Management Services-এর সিইও জ্ঞানশেখর তায়াগরঞ্জন বলেছেন, যে প্রতি ১০ গ্রামে সোনার দাম বৃদ্ধি ৩৯,১০০ টাকা থেকে শুরু হয়েছিল।