স্ত্রী সুজাতা নয় দলের পাশেই দাঁড়ালেন সৌমিত্র খাঁ

স্ত্রী  সুজাতা নয় দলের পাশেই দাঁড়ালেন সৌমিত্র খাঁ

কিন্তু খাতায়-কলমে এখনও সুজাতা তাঁর স্ত্রী। মঙ্গলবার আরামবাগের তৃণমূল প্রার্থী সুজাতা খাঁ মন্ডলকে মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে বিজেপির বিরুদ্ধে। যদিও সেই বিষয়টি নিয়ে পুরোপুরি নিরুত্তাপ তাঁর স্বামী বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। তিনি বলেন, " গত দশ বছরে আরামবাগে তৃণমূল ভোট করতে দেয়নি। এটা মানুষের ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ"। এভাবেই এদিনের ঘটনা নিয়ে নিজের অবস্থান প্রকাশ করেছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার সকালে আরামবাগের আরাণ্ডির মহল্লাপাড়া এলাকায় একটি বুথ থেকে অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থলে যান সুজাতা। তৃণমূলের অভিযোগ, গিয়েই বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের বিক্ষোভের মুখে পড়তে হয় তাঁকে। আর সুজাতার অভিযোগ, 'এখানকার তৃণমূলের ভোটারদের ভয় দেখাচ্ছে বিজেপি। বুথ দখলের চেষ্টা চালাচ্ছে। শেষ কয়েক দিন ধরেই এই সন্ত্রাসের পরিবেশ তৈরি হয়েছে।

কিন্তু আমি আসার পর আমার সঙ্গে তৃণমূলের ভোটাররা ভোট দিতে বেরিয়ে পড়েছেন।'' তারপরেই তাঁকে আক্রান্ত হতে হয়। দুপুরের দিকে আরও একটি বুথের পরিস্থিতি দেখতে গেলে তাঁকে হেনস্তা করা হয় বলে অভিযোগ। সে বার তাঁর মাথায় বাঁশ দিয়ে আঘাত করা হয় বলে অভিযোগ। চলতি বছর ২১ জানুয়ারি আচমকাই বিজেপি ছে়ড়ে তৃণমূলে যোগ দেন সৌমিত্র-র স্ত্রী সুজাতা।

গেরুয়া শিবির থেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে জোড়া ফুল শিবিরে সুজাতার যোগ দেওয়ার এক ঘণ্টার মধ্যেই সাংবাদিক বৈঠক ডেকে স্ত্রীকে ডিভোর্স দেওয়ার কথা ঘোষণা করেন সৌমিত্র খাঁ । বিবাহবিচ্ছেদের ঘোষণা করতে করতেই ফুঁপিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন বিজেপি যুব মোর্চার সভাপতি । ২২ জানুয়ারিই স্ত্রী-কে বিবাহবিচ্ছেদের নোটিস পাঠান তিনি। তারপর থেকেই রাজ্যজুড়ে তৃণমূলে হয়ে প্রচারে নেমে স্বামী-সহ তাঁর দলকে আক্রমণ করেন সুজাতা।

৫ মার্চ কালীঘাটে প্রার্থী তালিকা ঘোষণার দিন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আরামবাগ থেকে প্রার্থী করেন সুজাতাকে। দু'বারের বিধায়ক তথা দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক সঙ্গী কৃষ্ণচন্দ্র সাঁতরাকে সরিয়ে প্রার্থী করা হয় সৌমিত্র জায়াকে। প্রচারে নেমেও প্রথম দিকে সে ভাবে আরামবাগের কর্মীদের সহযোগিতা পাননি তিনি। পরে অবশ্য বিদায়ী বিধায়ককে পাশে নিয়েই ভোটপ্রচার শুরু করেন সুজাতা। কিন্তু ভোটের দিন দু'বার আক্রান্ত হলেও, স্বামীর সহানুভুতি বা সমর্থন কোনওটাই পেলেন না স্ত্রী।

পাল্টা নাম না করে সুজাতা বলছেন, " পাগল, ছাগলের কথার উত্তর দেওয়ার প্রয়োজন মনে করি না। আসলে বিজেপি দলটাই এরকম। আমি এখানে জিতে যাব সেটা ওরা জানে। তাই এমন হিংসা ছড়াচ্ছে। কিন্তু জেনে রাখুন সুজাতা মন্ডল লড়াইয়ের ময়দান ছেড়ে চলে যাওয়ার জন্য আসেনি। আমি এখান থেকে জিততে চলেছি"।