দক্ষিণ দমদমে বাড়ছে করোনা, সপ্তাহে ৩ দিন একাধিক বাজার বন্ধ

দক্ষিণ দমদমে বাড়ছে করোনা,  সপ্তাহে ৩ দিন একাধিক বাজার বন্ধ

গোটা রাজ্যেই বাড়ছে দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। এই পরিস্থিতিতে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে করতে দক্ষিণ দমদম পুরসভা এলাকায় সমস্ত দোকান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। এবার থেকে সপ্তাহে ৩ দিন সমস্ত দোকান ও বাজার বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। সোম, বুধ ও শুক্রবার বন্ধ থাকবে বাজার। শুধু জরুরি পরিষেবার দোকানগুলি খোলা থাকবে। দক্ষিণ দমদম (South DumDum) পুরসভা এলাকার বেশ কয়েকটি ওয়ার্ডে করোনা (Corona Virus) সংক্রমণ বৃদ্ধির লক্ষণ দেখা দিয়েছে।

পরিস্থিতিতে রাশ টানতে আগামী বেশ কয়েকদিন আংশিকভাবে বাজার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিল পুরসভা। জুলাই মাসের প্রথম থেকে ১৪ তারিখ পর্যন্ত সপ্তাহে তিনদিন করে বাজার পুরোপুরি বন্ধ রাখার কথা ভেবেছে প্রশাসকমণ্ডলী। ঠিক হয়েছে সোম, বুধ এবং শুক্র এই তিনদিন ওষুধের দোকান এবং আর কয়েকটি জরুরী পরিষেবা ছাড়া বাজার পুরোপুরি বন্ধ রাখা হবে। সপ্তাহের বাদবাকি দিনগুলি দুপুর দু'টো অবধি সব দোকান খোলা থাকবে।

পুরসভা সূত্রে খবর, এই পুরসভার দমদম পার্ক এবং শ্যামনগর, ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের এই অঞ্চলগুলি কোভিডের (COVID-19) প্রকোপ সামান্য বৃদ্ধি পেয়েছে। ওই ওয়ার্ডে ৭ জন আক্রান্ত হয়েছেন। দমদম স্টেশনের কিছু আগে হনুমান মন্দিরের পিছনের চত্বরে ১৮ নম্বর ওয়ার্ডে গত কয়েকদিন ১২ জন আক্রান্ত হয়েছেন বলে খবর এসেছে। এছাড়া ২৯ নম্বর ওয়ার্ড, বাঙুর ও তার আশপাশের অঞ্চলে ১৪ জন, ৩৪ নম্বর ওয়ার্ড, শ্রীভূমি এবং তার আশপাশ অঞ্চলে আক্রান্তের সংখ্যা দশ।

১৯ নম্বর ওয়ার্ড, কালিন্দীর পিছনের অংশে রবিবার অবদি আট জন আক্রান্ত হয়েছিলেন বলে জানতে পেরেছে পুরসভা। চিকিত্‍সকদের পর্যবেক্ষণে উঠে এসেছে, বাজারে অতিরিক্ত ভিড় এই সংক্রমণ ছড়ানোর অন্যতম কারণ। তাই এই প্রবণতায় রাশ টানতে প্রাথমিকভাবে সপ্তাহে তিনদিন করে বাজার সম্পূর্ণ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিল পুরসভা।  দক্ষিণ দমদম পুরসভার প্রশাসকমণ্ডলীর প্রধান পাঁচু রায় জানিয়েছেন, 'বাজার এলাকা থেকে করোনা ছড়াচ্ছে বলেই মতামত দিয়েছেন চিকিত্‍সকরা।

তাই আপাতত বোর্ড মিটিংয়ে বাজার আংশিক বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সোমবার বারাকপুরের মহকুমা শাসকের সঙ্গে আলোচনার পর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে পুরসভা।' দক্ষিণ দমদম প্রশাসকমণ্ডলী সূত্রে জানা গিয়েছে, যশোর রোডের নাগেরবাজার, মিনিবাজার, দমদম রোডের স্টেশন চত্বরে রাস্তা জুড়ে যে বাজার বসে এই বাজারগুলোতে মাত্রাতিরিক্ত ভিড় দেখা যাচ্ছে। এর পাশাপাশি দমদম পার্ক, দক্ষিণদাঁড়ি, বাঙুর বাজারে প্রচুর ভিড় হচ্ছে। পাঁচ নম্বর ওয়ার্ডের নতুন বাজার, রেললাইনের ধারে সুভাষ নগরের সুপার মার্কেট, তিন নম্বর ওয়ার্ডে প্রমোদনগরে পুরসভা নজরদারি চালিয়ে দেখেছে প্রচুর মানুষ অহেতুক ভিড় জমাচ্ছেন বাজার করার নাম করে।

এই প্রবণতায় রাশ টানতে বাজার বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুর-কর্তৃপক্ষ। দক্ষিণ দমদম পুরসভার সূত্রে পাওয়ার হিসেব অনুযায়ী, চলতি বছরের এপ্রিল থেকে জুন মাস পর্যন্ত এই দিন পর্যন্ত ১৫৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে খবর মিলেছে। এখনও পর্যন্ত ২২৬৩ জন মানুষ করোনাতে আক্রান্ত হয়েছেন। তারমধ্যে ২০১৬ জন সুস্থ হয়ে গিয়েছেন। এই মুহূর্তে হোম আইসোলেশন এ আছেন ১৩১ জন। ১৫৩ জনের মধ্যে বাকিরা হাসপাতালে চিকিত্‍সাধীন। সোমবার নতুন করে দু'জন মাত্র করোনা আক্রান্তের খবর পুরসভার কানে এসেছে। বাজার বন্ধ এবং অন্যান্য কয়েকটি সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়ে সংক্রমণের এই পর্যায়ে অতিরিক্ত সাবধানতা অবলম্বন করতে চায় পুর-কর্তৃপক্ষ বলে জানিয়েছেন প্রশাসকমণ্ডলীর প্রধান।