৫০ হাজারে শুরু করুন লাভের ব্যবসা, আয় হবে প্রচুর!

৫০ হাজারে শুরু করুন লাভের ব্যবসা, আয় হবে প্রচুর!

Business Ideas  পেতে বর্তমানে সকলেই চান। কারণ চাকরির চেয়ে নিজে ব্যবসা করাকেই অনেকে লাভজনক বলে মনে করছেন। এছাড়া ভারত উন্নয়নশীল দেশ হলেও ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার চাপে বর্তমানে চাকুরির ক্ষেত্র কমে যাচ্ছে। উদ্যোমী তরুণেরা তাই নিজেদের ব্যবসা শুরু করতে চাইছেন। তবে ব্যাপারটা যথেষ্ট চ্যালেঞ্জিং হয়ে দাঁড়িয়েছে।

নিঃসন্দেহে নিজের ব্যবসা করা দুর্দান্ত একটি পদক্ষেপ। তবে যে কোনও ব্যবসা শুরু করার আগে সেই বিষয়ে খতিয়ে দেখা উচিত। কারণ, সঠিক পরিকল্পনা করে ব্যবসায় নামলে তবেই সেই ব্যবসায় লাভ পাওয়া যায়। এখানে এমন একটি ব্যবসার কথা বলা হচ্ছে, যা থেকে প্রচুর অর্থ উপার্জন করা সম্ভব। দেখে নিন, ব্যবসাটি আপনার জন্য কতটা সুবিধাদায়ক। 

এখানে বলা হচ্ছে ময়দার কলের ব্যবসার কথা।  কী ভাবে এই ব্যবসা শুরু করবেন, তা দেখে নেওয়া যাক। এক কথায় স্পষ্ট বলে দেওয়া যেতে পারে, এটি একটি লাভজনক ব্যবসা হিসেবে প্রমাণিত হতে পারে। প্রথমেই বলে রাখা ভালো, যদি কোনও ব্যক্তি বড় আকারে এই ব্যবসা শুরু করতে চান তবে লাইসেন্স ও রেজিস্ট্রেশনের দরকার পড়বে। কিন্তু যদি কোনও ব্যক্তি, ছোট আকারে ময়দার কলের ব্যবসা শুরু করতে চান, তবে কোনও লাইসেন্স ও রেজিস্ট্রেশনের দরকার পড়বে না।

 ব্যবসা শুরু করার আগে এই বিষয়গুলো মাথায় রাখুন প্রথমত, এমন জায়গায় এই ব্যবসা শুরু করতে হবে, যে জায়গাটি যথেষ্ট জনবহুল। কোনও হাট, বাজার ইত্যাদি এলাকায় এই ময়দার কলের দোকান খোলা যেতে পারে। এমন জায়গায় এটি খোলা উচিত, যেখানে আশেপাশে কৃষকেরা চাষ করেন। কারণ, সেক্ষেত্রে কৃষকেরা তাঁদের শস্য (গম) সেই কলেই ভাঙাতে পারবেন। 

 ব্যবসা করতে কত খরচ হবে?  এই ব্যবসা শুরু করতে মেলে সরকারি সাহায্যও। সরকারের এমন একাধিক স্কিম রয়েছে, যেখানে আবেদন করে কোনও ব্যক্তি ব্যবসা শুরু করতে সরকারের কাছ থেকে সাহায্য নিতে পারেন। প্রাথমিকভাবে এই ব্যবসা শুরু করতে মেশিন ও অন্য প্রয়োজনীয় জিনিস কিনতে হবে। এর জন্য প্রায় 50 হাজার থেকে 1 লাখ টাকা খরচ হবে। এই ব্যবসা থেকে ভালো উপার্জনও করা যেতে পারে।

ময়দা মিলের লাইসেন্স  আপনি যদি  ছোট পরিসরে ময়দা কলের ব্যবসা শুরু করেন, তবে এই ব্যবসার জন্য আপনার লাইসেন্স এবং নিবন্ধনের প্রয়োজন নেই। কিন্তু আপনি যদি এটির ব্যবসা বৃহৎ পরিসরে করেন, তাহলে আপনাকে এর জন্য লাইসেন্স ও রেজিস্ট্রেশন নিতে হবে । যা আপনার নিকটস্থ খাদ্য বিভাগে সহজেই তৈরি হয়ে যাবে । এছাড়াও আপনি পৌর কর্পোরেশন, পৌরসভা ইত্যাদি থেকে ট্রেড লাইসেন্স পেতে পারেন।