'আমাকে ভারতরত্ন দেওয়ার দাবি বন্ধ হোক'‌, নেটিজেনদের বার্তা রতন টাটার

'আমাকে ভারতরত্ন দেওয়ার দাবি বন্ধ হোক'‌, নেটিজেনদের বার্তা রতন টাটার

তাঁকে 'ভারতরত্ন' দেওয়ার দাবি জানানো বন্ধ হোক। সকলের কাছে এমনই আর্জি জানালেন টাটা গ্রুপের চেয়ারম্যান রতন টাটা। শুক্রবার থেকে টুইটারে ট্রেন্ডিং হয়ে গিয়েছে হ্যাশট্যাগ #BharatRatnaForRatanTata। নেটিজেনদের কাছে অশীতিপর রতনের অনুরোধ, এমন দাবি জানানোর দরকার নেই। সেই সঙ্গে তিনি যে ভারতীয় হিসেবে দেশের উন্নতি ও সমৃদ্ধির পথে একজন অংশীদার হতে পেরে গর্বিত, তাও জানিয়ে দেন তিনি।

শুক্রবার মোটিভেশনাল স্পিকার ড. বিবেক ভিন্দ্রা টুইটারে দাবি করেন, দেশের প্রতি অবদানের জন্য রতন টাটাকে সর্বোচ্চ অসামরিক পুরস্কার 'ভারতরত্ন' দেওয়া উচিত। এই দাবি জানিয়ে তিনি শুরু করেন হ্যাশট্যাগটি। রাতারাতি সেটি ট্রেন্ডিং হয়ে যায়। বিবেকের সুরে সুর মেলান বহু নেটিজেন। সেদিকে লক্ষ রেখেই শনিবার সকালে রতন টাটা টুইট করে আর্জি জানান, এমন দাবি তোলা বন্ধ করুন নেটিজেনরা।

তিনি লেখেন, '‌একটি অ্যাওয়ার্ডের দাবিতে সোশ্যাল মিডিয়ার একাংশের আবেগকে আমি সম্মান জানাচ্ছি। আমার বিনীত অনুরোধ, এই ধরনের প্রচার বন্ধ হোক। আমি ভাগ্যবান যে, ভারতীয় হিসেবে দেশের উন্নতি ও সমৃদ্ধির পথে একজন অংশীদার হতে পেরেছি।'‌ কেবল বিখ্যাত শিল্পপতিই নন, সমাজসেবী হিসেবেও রতন টাটা রীতিমতো জনপ্রিয়। মাসখানেক আগেই টাটা সন্স গোষ্ঠীর এক অসুস্থ প্রাক্তন কর্মচারীর বাড়িতে চলে যেতে দেখা গিয়েছিল তাঁকে।

রতন টাটার মানবদরদী চেহারার পরিচয় পেয়ে আপ্লুত হয়েছিল নেটিজেনরা। গত বছরের মার্চে অতিমারীর মোকাবিলায় তাঁর সংস্থা টাটা ট্রাস্টের তরফে ৫০০ কোটি টাকা অনুদান দেওয়া হয়। পরে আরও ১ হাজার কোটি টাকার অনুদানের কথা ঘোষণা করেন তিনি। সব মিলিয়ে অঙ্কটা দাঁড়ায় দেড় হাজার কোটি টাকা। কিন্তু এসবের পরও প্রচারের আড়ালেই স্বচ্ছন্দ তিনি। তাই অনুরাগীদের বার্তা, তাঁকে বারবার 'ভারতরত্ন' দেওয়ার দাবি বন্ধ হোক।