নদীয়ায় বিধ্বংসী ঝড়ের তান্ডবে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির সাথে জলমগ্ন এলাকা

নদীয়ায় বিধ্বংসী ঝড়ের তান্ডবে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির সাথে  জলমগ্ন এলাকা

কৃষ্ণনগর    আবহাওয়া  দপ্তরে রিপোর্টনুযায়ী নদিয়া ঝড়ের বদলে ভারী ও অ তিভারী বৃষ্টির  সম্ভবনা আছে।অনেকেই নিশ্চিত  হয়েছিল, যে নদিয়ার ওপর ইয়াসের সেই রকম দাপট দেখা যাবে না  রাতে সেই মত পরম নিশ্চিত ছিল চাকদহ পৌর সভার দশ নম্বর ওয়ার্ড এবং চাঁদুড়িয়া এক নম্বর জিপির গঙ্গাপ্রসাদ পুর ও পোয়াডাঙ্গা মুকুন্দপুরে ইয়াসের দাপট আছড়ে পড়ে ভোর রাতে তাতে ক্ষতিগ্রস্ত হয় দশ থেকে পনের টি বাড়ি আংশিক। ক্ষতিগ্রস্ত প্রায় তিরিশ টি বাড়িতে। খবর পেয়ে ছুটে যান চাকদহ ব্লক আধিকারিক লোকাল প্রশাসন বিদ‍্যুৎ দপ্তরের কর্মী অফিসার রা।

ভাগীরথীর তীরে সান্যাল চর এলাকায় একটি কাঁচা রাস্তা রং একাংশ ভেঙ্গে চলে যায় নদীগর্ভে, ফলে ওই এলাকার অধিবাসীরা অত্যন্ত সমস্যার মধ্যে রয়েছেন।  ভোর সাড়ে চারটে নাগাদ হঠাৎ এক বিধ্বংসী ঝড় শান্তিপুরের বাগাছরা পঞ্চায়েতের করমচা পুর এলাকায় পঞ্চাশটি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয় ভেঙে পড়ে ইলেকট্রিক পোল, পোল্টি্্র মুরগির ফার্ম, বেশ কয়েকটি আমবাগানের ক্ষয়ক্ষতি হয়, 5 ইঞ্চি দেওয়াল ভেঙে উড়ে  যায় টিনের চাল স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্য লোকনাথ চক্রবর্তী ঝড় দুর্গতদের পাশে দাঁড়ান ভোর থেকেই।

শান্তিপুর ব্লকের গয়েশপুর পঞ্চায়েতের অন্তর্গত হিজুলি মুসলিম পাড়ায় হাসিবুল শেখের বসতবাড়ি, রান্নাঘর, গোয়ালঘর সহ ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। মসিবুলশেখ পেশায় তন্তুজীবি দুটি পাওয়ার লুমের কাপড় ঝরে চাল উড়ে গিয়ে বৃষ্টিতে ভিজে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। এলাকার মেম্বার সালমা বিবির স্বামী আসর শেখ জানান পরিমাণ হিসাব করে একটি চূড়ান্ত তালিকা তৈরি করে স্থানীয় পঞ্চায়েত এর মাধ্যমে বিডিওতে জমা করার ব্যবস্থা করছি। এই এলাকায় আরও 15 জনের আমবাগান, ধানের গোলা, সহ বিভিন্ন ক্ষয়ক্ষতি হয়। 

টানা বৃষ্টিতে জলমগ্ন নদিয়ার কল্যাণী স্টেশন চত্বর। বিভিন্ন জায়গায় জমে আছে জল। কোথাও আবার জল রয়েছে হাঁটু অবধি। জায়গায় জায়গায় জল থাকায় ভোগান্তিতে পড়েছেন স্থানীয়রা। ঝড়ের প্রকোপে ক্ষতি না হলেও গোটা নবদ্বীপ জলবেষ্টিত। বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই নদিয়া জেলার নবদ্বীপ সহ বেশ কিছু জায়গায় শুরু হয়েছে ভারী বৃষ্টিপাত। কখনও মাঝারি কখনও ভারী বৃষ্টিপাত চলছে নবদ্বীপ সহ সংলগ্ন এলাকায়। ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাব নদিয়া জেলায় তেমন প্রভাব না পড়লেও এদিন সকাল থেকেই ঘন কালো আকাশ মেঘ করে শুরু হয়েছে ভারী বৃষ্টিপাত।

আজ সারাদিনই নদিয়া জেলা জুড়ে বর্ষণ চলবে বলে জানা যায় আবহা দফতর সূত্রে। কখনও ঝিরঝিরে তো কখনও ভারী বৃষ্টি চলছে। তার সঙ্গে চলছে বজ্রপাত ও। দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলাতেও বৃষ্টি হচ্ছে। বৃষ্টির কারণে নবদ্বীপ শহরের একাধিক রাস্তায় যান চলাচল শ্লথ গতিতে চলছে। জেলার কৃষ্ণনগর চাকদহ শহরের অলিতে গলিতে জলমগ্ন। শান্তিপুরের সুধাকর অঞ্চলে বেশিরভাগ এলাকা জমা জলের কারণে রাস্তা বন্ধ হয়ে রয়েছে বেশ কয়েকটি। কৃষ্ণ কালিতলা, খুদে কালিতলা, বড়বাজার , কে সি দাস রোড, গুলবাজ মোড়, মুন্সির পূল ডাকঘর সবুজ সংঘ মোড় সর্বত্রই ছিলো জলমগ্ন।