ঋণের দায় আত্মঘাতী ব্যবসায়ী, কান্নায় ভেঙে পড়লো পরিবার

ঋণের দায় আত্মঘাতী ব্যবসায়ী, কান্নায় ভেঙে পড়লো পরিবার

মালদা : ঋণের দায়ে জর্জরিত হয়ে আত্মঘাতী হলেন এক  দুধ ব্যবসায়ী। বাড়ির পিছনে কাঁঠাল গাছে সোমবার সকালে তার ঝুলন্ত মৃতদের উদ্ধার করে স্থানীয় বাসিন্দারা। ঘটনাটি ঘটেছে মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকায় ভালুকা গ্রামে। মৃত ওই দুধ ব্যবসায়ীর নাম ছেচু ঘোষ(৪৬)। ভালুকা বাজার এলাকায় তার বাড়ি।

ঘটনার জেরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকা জুড়ে। খবর পেয়ে ভালুকা ফাঁড়ির মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজে পাঠিয়েছে। ওই ব্যক্তি গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী হয়েছে বলে পুলিশের প্রাথমিক অনুমান।

মৃতের দাদা মন্টু ঘোষ জানান ভাই বিভিন্ন জায়গায় দিনের দায় জর্জরিত হয়ে গিয়েছিল।সারাদিন ভীষণ পরিশ্রম করতো। দুধ বিক্রি করা ছাড়া অন্যের জমিতে মজুরি সহ বিভিন্ন কাজ করে বেড়াতো। তবুও বিভিন্ন ঋণ সংস্থার টাকা শোধ করতে পারত না। প্রতিদিনই তাগাদার মুখে পড়তে হতো তাকে। তার তিন ছেলে।

ঋণের জলে জড়িয়ে পড়ে চরম মানসিক কষ্টের দিন কাটাচ্ছিল। কিন্তু এই ভাবে চরম পথ বেছে নেবে বুঝতে পারেনি।
এদিকে খবর পেয়ে আজ সকালে ভালুকা ফাঁড়ির পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে। মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।