ঘরেতে উইপোকার উপদ্রব? দেখুন সমাধান

ঘরেতে উইপোকার উপদ্রব? দেখুন সমাধান

আজবাংলা   স্যাঁতসেঁতে পরিবেশে উইপোকার তাণ্ডব বাড়ে। তাই ঘরবাড়ি পরিষ্কার রাখা জরুরি। ঘরের জিনিসপত্র নিমেষেই নষ্ট করতে পারে উইপোকা। কাগজপত্র বা বই-খাতা, টাকা এবং কাঠের জিনিসপত্রে যদি একবার উইপোকা ধরে তাহলে তা থেকে সহজে মুক্তি পাওয়া খুবই দুষ্কর।

পরিবেশ যদি একটু স্যাঁতস্যাঁতে হয় তাহলে তো কথাই নেই! উইপোকার উপদ্রবে বাড়িতে কোনও জিনিসপত্র রাখাই দায় হয়ে পড়ে। উইপোকার উপদ্রবে বাড়িতে কোনো জিনিসপত্র রাখাই দায়। যদি এ সমস্যায় পড়েন, তা হলে কী করবেন?

চিন্তার কিছু নেই। আসুন আজকের প্রতিবেদনে দেখে নিন ঘরোয়া কি কি উপায়ে তাড়াতে পারেন উইপোকা। 

১. বাড়ির যেসব জায়গায় আসবাবপত্র রয়েছে, তার আশপাশে কোথাও যেন পানি না জমে সেদিকে খেয়াল রাখুন। বাড়ির আশপাশ পরিষ্কার রাখুন। কোথাও যেন স্যাঁতসেঁতে না থাকে। কারণ উইপোকা স্যাঁতসেঁতে জায়গায় বেশি বিচরণ করে।

২. উইপোকা তেতো গন্ধ সহ্য করতে পারে না। যেসব স্থানে উইপোকা হয়েছে, সেখানে তেতো জিনিসের রস ছিটিয়ে দিন। ব্যবহার করতে পারেন নিম বা করলার রস স্প্রে। এ ছাড়া নিমপাতা শুকিয়ে গুঁড়ো করেও বইয়ের আলমারির তাকে বা কাঠের আসবাবের কোণায় ছিটিয়ে দিন। 


৩. এই পোকা তাড়াতে নুন ব্যবহার করতে পারেন। যেখানে উইপোকা লেগেছে, সেখানে নুন ছিটিয়ে দিন। উইপোকা বা ঘুণ লাগা থেকে বাঁচতে নুন ব্যবহার করাও দুর্দান্ত বিকল্প।


৪. কাঠের জিনিসপত্রকে উইপোকা থেকে বাঁচাতে কেরোসিন ব্যবহার  করতে পারেন। কাঠের ওপরে কেরোসিন স্প্রে করুন।

৫. বইয়ের আলমারি, কাঠের আসবাবপত্র ও কাপড়ের ভাজে ভাজে রাখুন ন্যাপথলিন। ন্যাপথলিনের কড়া গন্ধের ফলে উইপোকা হবে না। 

৬. যে কোনো পোকামাকড় তাড়াতে কালোজিরা ব্যবহার করতে পারেন। কালোজিরা রোদে শুকিয়ে তা কাপড়ের পুটলি করে বেঁধে যেখানে উইপোকা হয়েছে, তার আশপাশে রেখে দিন। 

৭. ব্যবহার করতে পারেন কর্পুর গুঁড়ো। এই কর্পুর গুঁড়ো করে প্যারাফিনের সঙ্গে মিশিয়ে ঘরের দেয়ালে ও আসবাবের গায়ে দিতে পারেন। এর গন্ধও উইপোকা সহ্য করতে পারে না।