শোভন চট্টোপাধ্যায় ও বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে আগামিকাল মিছিল বিজেপির

শোভন চট্টোপাধ্যায় ও বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে  আগামিকাল মিছিল বিজেপির

 গত ৪ জানুয়ারি বিজেপির মিছিলে গরহাজির থাকার পর রবিবার সন্ধেয় হেস্টিংসে বিজেপির দফতরে এলেন শোভন চট্টোপাধ্যায় ও বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। নতুন বছরের শুরুতে গত সোমবার শোভন-বৈশাখীকে স্বাগত জানাতে আয়োজন করা মিছিলে তাঁরা না আসায় বেশ অস্বস্তিতে পড়তে হয় দলকে। তারপর ফের দলের বৈঠকে যোগ দিতে এলেন বিজেপির দুই পর্যবেক্ষক।

পাশাপাশি, বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর এই প্রথম সংগঠনের কোনও বৈঠকে এলেন শোভন।  কেন এই বৈঠক? শোভন চট্টোপাধ্যায়( Sovan Chatterjee) এনিয়ে প্রকাশ্যে তেমন কিছু না বললেও তিনি জানিয়েছেন, 'দল ডেকেছে তাই এসেছি।' আগামিকাল দক্ষিণ কলকাতা বিজেপির তরফে একটি মিছিলের আয়োজন করা হয়েছে।

আয়োজন করেছে দলের দক্ষিণ কলকাতার সংগঠন। সেই মিছিলে শোভন-বৈশাখী থাকতে পারেন কিনা সেটাই এখন দেখার।  বিজেপি সূত্রে খবর, আজকের বৈঠকে থাকছেন সুনীল বনসল, দেবজিত্ সরকার, কৈলাস বিজয়বর্গীয়(Kailash Vijayvargiya), গজেন্দ্র সিং শেখাওয়াত, শঙ্কুদেব পন্ডার মতো নেতারা।

একুশের নির্বাচনে কলকাতায় বিজেপি রণকৌশল কী হবে তা নিয়ে কথা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। তৃণমূলে থাকার সময়ে তিনি কলকাতার যেসব অঞ্চল সামলাতেন, সেইসব অঞ্চলের দায়িত্বই তাঁকে দেওয়া হয়েছে। ফলে কলকাতা জোনের দায়িত্ব পেয়েছেন শোভন।সোমবার দক্ষিণ কলকাতাতেই আরও একটি মিছিলের প্রস্তুতি নিচ্ছে বিজেপি। সেটা হবে দলের বস্তি উন্নয়ন শাখার নামে। 

সেই মিছিলে রাজ্য নেতৃত্বের কেউ থাকবেন কি না, তা এখনও জানা যায়নি। তবে শেষ পাওয়া খবর পর্যন্ত এই মিছিলের জন্য পুলিশের অনুমতি মেলেনি। শোভন-বৈশাখীর মিছিলের জন্য পুলিশ অনুমতি দিয়ে দিয়েছে বলেই জানিয়েছেন বিজেপির দক্ষিণ কলকাতা জেলা সভাপতি শঙ্কর শিকদার। ওই মিছিল হবে গোলপার্ক থেকে সেলিমপুর পর্যন্ত।