মাস্ক না পরে সেলফি তুলে জরিমানার মুখে চিলির প্রেসিডেন্ট

মাস্ক না পরে সেলফি তুলে জরিমানার মুখে  চিলির  প্রেসিডেন্ট

মুখে মাস্ক না পরে সেলফি তুলে আইন ভাঙায় সাড়ে তিন হাজার ডলার জরিমানা গুনতে হয়েছে চিলির প্রেসিডেন্ট সেবাস্টিয়ান পিনেরাকে। মাস্ক পরা এক নারীর সাথে ওই সেলফি চলতি মাসের শুরুর দিকে ভাইরাল হওয়ার পর অবশ্য ক্ষমাও চেয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট সেবাস্টিয়ান পিনেরা।

প্রেসিডেন্ট স্বীকার করেছেন যে, কাচাগুয়া শহরের কাছে সৈকতে ওই নারীর সাথে সেলফি তোলার সময় তার মাস্ক পরে নেয়া উচিত ছিল। জনসমক্ষে মাস্ক পরার বিষয়ে কঠোর বিধিনিষেধ রয়েছে চিলিতে। মাস্ক পরার নিয়ম না মানলে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার বিধান রয়েছে।

যার মধ্যে রয়েছে জরিমানা এবং কারাবাস। চিলিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। ল্যাটিন আমেরিকার দেশগুলোর মধ্যে চিলিতে কোভিডে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা দুটোই সবচেয়ে বেশি। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্যমতে, দেশটিতে এখনো পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৫ লাখ ৮১ হাজার ১৩৫ জন।

আর মারা গেছে ১৬ হাজার ৫১ জন।অতীতেও বিতর্কিত ছবির জন্য রাজনৈতিকভাবে ঝামেলার মধ্যে পড়তে হয়েছে মি. পিনেরাকে। গত বছর রাজধানী সান্তিয়াগোতে বৈষম্যের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ার রাতে একটি পার্টিতে ছবি তুলে তোপের মুখে পড়েছিলেন তিনি।

এছাড়া চলতি বছরের এপ্রিলে সরকার বিরোধী আন্দোলনের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা একটি প্লাজায় ছবি তুলে সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি। সান্তিয়াগোতে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত বিধি-নিষেধ নিয়েও উত্তেজনা রয়েছে মানুষের মধ্যে।

গত জুন থেকে চিলিতে দৈনিক এক হাজার নতুন সংক্রমণ পাওয়া যাচ্ছে। ডিসেম্বরের শুরুতে মি. পিনেরা ৯০ দিনের জরুরি অবস্থা জারি করেছেন, যা তার সরকারকে বিধিনিধেষ আরোপের সুযোগ করে দিচ্ছে।