মহরমে শোভাযাত্রার আবেদন খারিজ করে দিল সুপ্রিম কোর্ট

মহরমে শোভাযাত্রার আবেদন খারিজ  করে দিল সুপ্রিম কোর্ট

আজবাংলা    শর্তসাপেক্ষে পুরীর রথযাত্রায় অনুমতি দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট, আবার মুম্বইয়ে 'পরিশান' উৎসবের জন্য জৈন সম্প্রদায়কেও ছাড় দেওয়া হয়েছিল, তেমনই মহরমের তাজিয়া বের করার ক্ষেত্রেও অনুমতি দিক সুপ্রিম কোর্ট। এমনই আবেদন নিয়ে দেশের সর্বোচ্চ আদালতে আবেদন করেছিলেন সইদ কালবে জাভেদ।

কিন্তু করোনার এই পরিস্থিতিতে সারা দেশে মহরমের তাজিয়া বের করতে দেওয়ার অনুমতি দেওয়া সম্ভব নয় বলে সাফ জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট। শুধুমাত্র মহরমের শোভাযাত্রার অনুমতি চেয়েই সুপ্রিম কোর্টে একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের করা হয়েছিল। সেই মামলাতেই নিজের অবস্থান স্পষ্ট করে রায় দিয়ে দিল সর্বোচ্চ আদালত।সর্বোচ্চ আদালতের যুক্তি, 'জৈনদের উৎসব বা পুরীর রথযাত্রার ক্ষেত্রে কতটা ঝুঁকি হতে পারে, সেই মাত্রা মূল্যায়ন করা গিয়েছিল। কারণ সেটা একটি নির্দিষ্ট জায়গায় হচ্ছিল।

কিন্তু এক্ষেত্রে সারাদেশের জন্য মহরমের তাজিয়ার অনুমতির আর্জি জানানো হয়েছিল। কোনও নির্দিষ্ট জায়গার জন্য আর্জি জানানো হলে বিষয়টি বিবেচনা করে দেখা যেত।' শুধু তাই নয়, এদিন ওই আবেদন খারিজ করে দিয়ে শীর্ষ আদালত স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, সারা দেশের মানুষের স্বাস্থ্যের সুরক্ষার স্বার্থেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হল।

সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি শরদ অরবিন্দ বোবডের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের বেঞ্চ এদিন মহরমের তাজিয়ার অনুমতি খারিজ করে দিয়ে জানায়, 'সারা দেশের জন্য একটি রায় দেওয়ার আর্জি জানানো হয়েছিল। কিন্তু গোটা দেশে মহরমের তাজিয়ার জন্য একই রকম নির্দেশ দেওয়া সম্ভব নয়। মহরমের শোভাযাত্রায় অনুমতি দেওয়া হলে চরম বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হবে।'আবেদনকারী জাভেদ এর পরে শিয়া মুসলিমদের জন্য লখনউতে মহরমের শোভাযাত্রার অনুমতি চেয়েছিলেন। এ বিষয়ে তাঁকে ইলাহাবাদ হাইকোর্টের দ্বারস্থ হওয়ার ‘পরামর্শ’ দেয় প্রধান বিচারপতি বোবদের বেঞ্চ।