ভারতীয় ভূখণ্ডে ঢুকে কুপিয়ে খুন তৃণমূলের বুথ সভাপতিকে কোপাল বাংলাদেশি দুষ্কৃতিরা

ভারতীয় ভূখণ্ডে ঢুকে কুপিয়ে খুন তৃণমূলের বুথ সভাপতিকে কোপাল বাংলাদেশি দুষ্কৃতিরা

কাঁটাতার পেরিয়ে ভারতীয় ভূখণ্ডে ঢুকে নাশকতা চালানোর অভিযোগ উঠল বাংলাদেশি দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। কুপিয়ে খুন করা হল এক ভারতীয়কে। জখম আরও কয়েকজন। আজ, শুক্রবার দুপুরে এই ঘটনা ঘটেছে দক্ষিণ দিনাজপুরের হিলি ব্লকের ৩ নম্বর ধলপাড়া গ্রামে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে খবর, মৃত ব্যক্তির নাম আলীম মণ্ডল। বয়স ৪০ বছর। তিনি এলাকার তৃণমূলের বুথ সভাপতি ছিলেন। গুরুতর জখম অবস্থায় বালুরঘাটের হাসপাতালে ভর্তি আরও এক যুবক। তাঁর নাম আছিরুল মণ্ডল। বয়স বছর বাইশ। সূত্রের খবর, দুই দেশের সীমানায় কাঁটাতারের ওপারে জিরো পয়েন্ট বরাবর জামালপুর মসজিদে নামাজ পড়তে গিয়েছিলেন ভারতীয়রা। সে সময় অতর্কিতে হামলা চালায় বাংলাদেশের দুষ্কৃতীরা। 

শোনা গিয়েছে, আলীমকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপাতে শুরু করে আততায়ীরা। বাকিদের উপরেও চড়াও হয় তারা। পরে পুলিশ এসে পড়ায় দুষ্কৃতীরা পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থল থেকে জখম অবস্থায় আলীম ও আছিরুলকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে পুলিশ। রাস্তাতেই মৃত্যু হয় আলিমের।

ক্ষতবিক্ষত শরীরে আছিরুলকে ভর্তি করা হয়েছে হাসপাতালে। পুলিশ জানিয়েছে, আরও কয়েকজন আহত হয়েছেন। স্থানীয়রা বলছেন, গভীর রাতে সীমান্ত পেরিয়ে এসে পড়শি দেশ থেকে দুষ্কৃতীরা অবাধে লুঠপাট চালিয়ে ফিরে যায় মাঝে মধ্যেই। অভিযোগ, একের পর এক এই সব ঘটনার পরেও সীমান্তে কড়া নজরদারির ব্যবস্থা নেই।

সীমান্ত লাগোয়া গ্রামগুলির মানুষজনের নিরাপত্তা শিকেয় উঠেছে। গ্রামবাসীদের দাবি, অনেকসময়েই বাংলাদেশের দুষ্কৃতীদের সঙ্গে স্থানীয় দুষ্কৃতীদের একাংশের আঁতাত থাকায় তাদের আরও বাড়বাড়ন্ত হয়। তারাই বাংলাদেশি দুষ্কৃতীদের নিরাপদে যাতায়াতের ব্যবস্থা করে দেয় বা আশ্রয় দেয়।

দু'দেশের দুষ্কৃতীরা মিলিত ভাবেও নানা অপারাধমূলক কাজ সংগঠিত করে। আবার এ দেশে দুষ্কর্ম করে এখানকার দুষ্কৃতীরা বাংলাদেশে পালিয়ে যায় কার্যত বিনা বাধায়। কখনও বিএসএফ জওয়ানেরা বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে উল্টে তারা জওয়ানদের উপরেও হামলা চালায়।

জওয়ানেরাও দুষ্কৃতী হামলায় জখম হয়েছেন, এমন ঘটনাও ঘটেছে।হিলি থানার ওসি প্রীতম সিং জানান, মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য বালুরঘাট জেলা হাসপাতালে পাঠিয়ে পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে।