বিবাহ ও শেষকৃত্যে সর্বাধিক নিমন্ত্রিত কত তাই নিয়ে নয়া নির্দেশিকা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের

বিবাহ ও শেষকৃত্যে সর্বাধিক নিমন্ত্রিত  কত  তাই নিয়ে নয়া নির্দেশিকা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের

আজবাংলা :   সামাজিক দূরত্ব-সহ একাধিক করোনাবিধি মেনে চলছে সামাজিক নানা অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে নিমন্ত্রিতদের সংখ্যা বেঁধে দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। এবারেও সেই নিয়মই বহাল থাকল। শনিবার প্রকাশিত নয়া গাইডলাইনে স্পষ্ট করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, বিয়ের ক্ষেত্রে সর্বাধিক ৫০ জনের জমায়েত হয়ে পারে। শেষকৃত্য বা কবরস্থ করার সময় সেই সংখ্যাটা ২০।

আপাতত ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বজায় থাকবে এই নিয়ম। তবে আনলক-৪ পর্বেই সামাজিক জমায়েতে লোক সংখ্যা ৫০ থেকে বাড়িয়ে ১০০ করা হচ্ছে। যদিও তা পুরোপুরি করোনা বিধি মেনেই করতে হবে।প্রসঙ্গত, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক বিবৃতি দিয়ে জানাল, মেট্রো পরিষেবা চালু হতে চলেছে আনলক ৪ পর্বে। শুধু তাই নয়, সামাজিক, শিক্ষামূলক, বিনোদন, সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় জমায়েতে ছাড় দেওয়া হচ্ছে ২১ সেপ্টেম্বর থেকে। শর্ত, সর্বাধিক ১০০ জন মানুষ জমায়েত করতে পারবেন এই ধরনের অনুষ্ঠানে।

বাধ্যতামূলক ভাবে সঙ্গে রাখতে হবে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, গ্লভস ও মাস্ক। কন্টেইনমেন্ট জোনে লকডাউন চলবে ৩০ সেপ্টেবর পর্যন্ত। এই পর্বেও বন্ধই থাকছে স্কুলের পঠনপাঠন।কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রে এ দিন আরও জানানো হয়েছে, কন্টেইনমেন্ট জোনের আওতায় পড়ে না এমন স্কুলগুলিতে শিক্ষকের পরামর্শ নিতে ছাত্ররা যেতে পারবে। তবে এই স্কুলগুলিতে আপাতত নবম শ্রেণি থেকে দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র-ছাত্রীরাই আসতে পারবে। সেক্ষেত্রে লাগবে অভিভাবকের লিখিত অনুমতি।