শারীরিক ও মানসিক সম্পর্কের মধ্যে বিশাল টানাপোড়েনে জন্ম নেয় পরকীয়া

শারীরিক ও মানসিক সম্পর্কের মধ্যে বিশাল টানাপোড়েনে জন্ম নেয় পরকীয়া

ব্যক্তিগত জীবনে বিবাহিত প্রত্যেক মানুষই নিজের কাছের ও পাশের মানুষটিকে খুব ভালোবাসেন। সেই ভালোবাসাকে সম্মানও করেন সবাই। তবু, অনেক মানুষই কোন না কোনও ভাবে জড়িয়ে পড়েন বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে (Extra Marital Affair) । কিন্তু কেন? বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, ভালোবাসা  (Love And Relationship) কিন্তু কোন অনুভূতি নয়, বরং ব্রেন সিস্টেম।

 বিশেষজ্ঞদের মতে ভালোবাসায় পড়লে, মানুষের তিনটি ব্রেন সিস্টেম কাজ করে। প্রথমত, সেক্স ড্রাইভ, দ্বিতীয়ত, প্রেমে রোমান্টিসিজম এবং তৃতীয়ত, সঙ্গী বা সঙ্গিনীর সঙ্গ (Extra Marital Affair) । মানুষ যখন প্রেমে   (Love And Relationship) পড়েন, তখন এই তিনটি প্রণালী আলাদা আলাদাভাবে কাজ করে। একজনের সঙ্গে প্রেমে পড়লে, অনেক মানুষই অন্য আরেক জনের জন্য তীব্র ভালবাসা অনুভব করতে পারেন।

আর সেক্স ড্রাইভ কাজ করতে পারে একের বেশি মানুষের জন্যও।  বিশেষজ্ঞদের মতে, বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের ক্ষেত্রে বিভিন্ন মানুষ বিভিন্নভাবে প্রতিক্রিয়া দেন। কিছু মানুষের ক্ষেত্রে এটা চাহিদা হয়ে দাঁড়ায়। আর কিছু মানুষ শুধু স্ট্রেস কাটাকে এই ধরনের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। এমনকী স্ত্রী থাকা সত্ত্বেও। দেখে নিন বিশেষজ্ঞদের মতে মূলত যেসব কারণে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে   (Love And Relationship) জড়িয়ে পড়ে মানুষ। 

 শুধুমাত্র যৌনাকাঙ্খা পূরণ করতে:  এই ধরনের সম্পর্ক প্রায়ই দেখা যায়। শুধুমাত্র সেক্সের জন্য একে অপরের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। এরা এদের জীবনসঙ্গী বা সঙ্গিনীকে ছাড়তে কোনও ভাবে রাজি নন। এরা শয্যাসঙ্গী। বিছানার উষ্ণতাই (Extra Marital Affair)  এদের কাছে টানে। তবে এই ধরনের সম্পর্ক বেশিদিন টেকে না বলেই জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।  

আবেগপ্রবণ সম্পর্ক:  অন্য মহিলার প্রতি অনুভুতি থাকা কিংবা আবেগপ্রবণ সম্পর্কও কিন্তু সেক্সুয়াল সম্পর্কের মতো পাপ বলেই ধরা হয়। এই ধরণের সম্পর্ক একেবারে মানসিক। এরা প্রতিনিয়ত নিজেদের মধ্যে কথাবার্তা বলা, মেসেজ বিনিময় করা ইত্যাদিতে নিবিষ্ট থাকেন। সময় পেলেই একে অন্যের বিষয়ে ভাবেন। শারীরিক সম্পর্ক না থাকলেও প্রতিটি গোপন মুহূর্তের কথা শেয়ার করেন এঁরা। 

 বিরক্তি থেকে মুক্তি পেতে:  বর্তমান সঙ্গীর প্রতি একপ্রকার বিরক্ত হয়েও এই ধরণের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন অনেক মানুষ। এরা তাদের পার্টনারকে ছাড়তে চান না। বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, ৯০ শতাংশ বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক  (Love And Relationship)  এই ভাবেই গড়ে ওঠে। বর্তমান সময়ে স্বামী-স্ত্রী’র (Marriage relation)  মধ্যে কোন সমস্যা হলে সেই সমস্যা না মিটিয়ে একে-অপরকে দোষারোপ করে। ফলে বিরক্ত হয়ে কোনও কোনও ক্ষেত্রে কোনও ব্যক্তি এই ধরনের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন দ্রুত।

 কাল্পনিক সম্পর্ক:   মানুষ চাহিদামতো কল্পনার জন্ম দিতে পারে। ধরা যাক, আপনার কোন কলিগ বা বন্ধু আপনার সঙ্গে সময় (Extra Marital Affair) কাটাতে পছন্দ করে। আর আপনিও ভেবে নিয়েছেন যে সে সবকিছু ছেড়ে আপনার সঙ্গে থাকতে শুরু করবে। এমনটা বহু ক্ষেত্রেই হয়ে থাকে।

 শারীরিক ও মানসিক সম্পর্ক:    বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের মধ্যে এই ধরনের সম্পর্ক সবথেকে ভয়ানক। শারীরিক এবং মানসিক দুই দিক থেকেই জড়িয়ে পড়ে দু’জন। বলা যেতে পারে, বাস্তবে তাঁরা একসঙ্গেই রয়েছেন। একাত্মভাবে। বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, এই ধরনের সম্পর্ক খুব কম ক্ষেত্রেই দেখা যায়। তবে এই ধরনের সম্পর্কের ভবিষ্যৎ ডিভোর্স   (Marriage Divorce relation) এবং পুনর্বিবাহ পর্যন্ত গড়ানোর সম্ভাবনা থাকে যা এড়ানো যুগলের কাছে কঠিন হয়ে পরে।