সহকারী শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগে চাকরি বাতিল শুরু কমিশনের!

সহকারী শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগে চাকরি বাতিল শুরু কমিশনের!

সহকারী শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগ সামনে আসতেই কড়া পদক্ষেপ কমিশনের। মেধাতালিকার বাইরে থাকা ২ জন চাকরিরত সহকারী শিক্ষকের চাকরি বাতিল করল কমিশন। প্রসঙ্গত, এর আগে নিয়োগ দুর্নীতির মামলায় একাধিক প্রার্থীর চাকরি বাতিল করেছিল কলকাতা হাইকোর্ট। উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে এসএলএসটি-র মাধ্যমে বাংলার সরকারি শিক্ষক নিয়োগ হয়।

সেই নিয়োগ নিয়েই দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে। মামলাকারী বর্ণালী সাহা বাংলার সহকারী শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগে মামলা করেন। তিনি অভিযোগ করেন, ২ জন প্রার্থী চাকরি পেয়েছেন, অথচ তাঁরা মেধা তালিকার অনেক পিছনে। এই অভিযোগ সামনে আসতেই এবার কালবিলম্ব না করে কড়া পদক্ষেপ নিল কমিশন।

প্রসঙ্গত, গ্রুপ ডি, সি কিংবা SLST'র অনান্য বিষয় ভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগের মামলায় ইতিমধ্যেই অনেকের চাকরি বাতিল করেছেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিত্‍ গঙ্গোপাধ্যায়। একটি মামলায় রাজ্যের আইনজীবীকে এদিন এও বলতে শোনা গেল যে,হাইকোর্ট বললে কমিশন সবার চাকরি বাতিল করে দেবে।

এপ্রসঙ্গে মামলাকারীর আইনজীবী ফিরদৌস শামীম বলেন, "কমিশন হলফনামা দিয়ে চাকরি বাতিলের কথা জানিয়েছে। কিন্তু এখানে দু'জন নয়, আরও অনেকে আছে। তাদের নাম আমরা আদালতে বলব।"