বিদ্যুতের খরচ বাড়ল অনেকটা, জেনে নিন ইউনিট প্রতি কত দাম?

বিদ্যুতের খরচ বাড়ল অনেকটা, জেনে নিন ইউনিট প্রতি কত দাম?

শজোড়া কয়লা সঙ্কটের জেরে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে গোটা দেশে বিদ্যুতের ঘাটতি(Electricity Crisis) নিয়ে তৈরি হয়েছে আশঙ্কার আবহ। এরইমাঝে এবার এক ধাক্কায় কলকাতা(Kolkata) ও শহরতলিতে ইউনিট প্রতি বিদ্যুতের দাম(Electricity Price) বেড়েছে প্রায় ৩০ পয়সা। যা নিয়ে নতুন করে উদ্বেগের বাতাবরণ তৈরি হয়েছে নাগরিক মহলে।

জানুয়ারিতে যেখানে প্রতি ইউনিট পিছু বিদ্যুতের দাম ছিল ৪ টাকা ৮৯ পয়সা। তা ফেব্রুয়ারি থেকে বেড়ে হয়েছে ৫ টাকা ১৮ পয়সা। ২৫ ইউনিট পর্যন্ত বিদ্যুতের দামে এই পরিবর্তন হয়েছে। অন্যদিকে ৩০০ ইউনিটের বেশি বিদ্যুত্‍ খরচ হলে প্রতি ইউনিট প্রতি এই দাম জানুয়ারি মাসে ছিল ৮ টাকা ৮২ পয়সা। ফেব্রুয়ারি মাসে তা হয়েছে ৯ টাকা ২১ পয়সা। 

 ইতিমধ্যেই নতুন দাম বৃদ্ধি নিয়ে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ শানিয়েছেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী(Leader of Opposition Shuvendu Adhikari)। তোপ দেগেছেন টুইটারে। CESE ও মমতাকে একযোগে আক্রমণ শানিয়ে শুভেন্দু লেখেন, ‘চুপিচুপি দাম বাড়িয়ে দিয়েছে CESC।

প্রায় ৩০ লক্ষের বেশি গ্রাহককে পরিষেবা দিয়ে থাকে এই সংস্থা। কিন্তু দাম বৃদ্ধির আগে তাঁদের কিছু জানানোর প্রয়োজন মনে করেনি তাঁরা। মমতার আশীর্বাদেই এই একচেটিয়া আধিপত্যের ক্ষমতা রাখছে CESC। বর্তমানে গোটা কলকাতায় গোটা বছরে প্রায় ২০ হাজার মিলিয়ন ইউনিট বিদ্যুতের প্রয়োজন পড়ে। কিন্তু, নতুন মূল্যবৃদ্ধির জেরে বার্ষিক ৬০০ কোটি টাকা অতিরিক্ত রাজস্ব আয় হবে রাজ্য সরকারের’।

প্রসঙ্গত, ২০২০ সালে করোনাকালের শুরু থেকে বাংলায় বিদ্যুতের লাগামছাড়া দাম নিয়ে শোরগোল পড়ে যায়। অন্য রাজ্যের থেকে বাংলায় বিদ্যুতের দাম সর্বদা কেন আকাশছোঁয়া থাকছে সেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করে। অন্যদিকে বর্তমানে ফের CESC এর দাম বৃদ্ধির খবর সামনে আসতেই চাপানউতর শুরু হয়েছে নাগারিক মহলে। এই বিষয়ে বিদ্যুত্‍ মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসকে ফোন করা হলে তিনি ফোন তোলেননি।