আমেরিকান নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিত্‍ নিশানায় দেশের বিজেপি

আমেরিকান নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিত্‍  নিশানায় দেশের বিজেপি

 তৃতীয় ঢেউয়ের আগে রাজ্যে কোভিড পরিকাঠামোর কার্যকারিতা বুঝতে নতুন গবেষণা প্রকল্প শুরু করতে চলেছে রাজ্য সরকার। প্রকল্পের অভিভাবকত্ব করবেন নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিত্‍ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্য সরকারের সঙ্গে 'ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব লিভার অ্যান্ড ডায়জেস্টিভ সায়েন্সেসে'র যৌথ উদ্যোগে প্রকল্পের তত্ত্বাবধানে রয়েছেন নোবেলজয়ী বাঙালি।

নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিত্‍ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর বিচারে করোনা মোকাবিলায় উত্তরপ্রদেশের থেকে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছে বঙ্গ এবং এ রাজ্যের কর্মদক্ষতাও সন্তোষজনক। শুক্রবার সোনারপুরে লিভার ফাউন্ডেশনের একটি অনুষ্ঠানের শেষে তিনি বলেন, ''করোনায় অনেকের মৃত্যু হচ্ছে। কিন্তু উত্তরপ্রদেশে সেই মৃত্যুর পরিসংখ্যানই ঠিকমতো রাখা হচ্ছে না। তাই ওঁদের কর্মদক্ষতা নিয়ে কিছুই বলার নেই।''

সেরো সার্ভিলেন্সের পরিসংখ্যান উল্লেখ করে অভিজিত্‍ জানান, উত্তরপ্রদেশে ৭৫ শতাংশ মানুষের কোভিড হয়ে গিয়েছে। সেখানে বঙ্গে আক্রান্ত মাত্র ৬১ শতাংশ।  অভিজিত্‍বাবুর। তিনি বলেন, ''আমেরিকা, ইউরোপ জিডিপি-র ২০ শতাংশ খরচ করছে। সেখানে আমাদের ২-৩ শতাংশ খরচ করতে হাঁফ ধরে যাচ্ছে। তাই আমরা যতটা করতে পারতাম, ততটা করা হচ্ছে বলে মনে হয় না।'' অনলাইনে দৈনিক বিজ্ঞানাভ্যাস পত্রিকা চালু করছে লিভার ফাউন্ডেশন। এ দিন সেটির সূচনা করে অভিজিত্‍বাবু ।  

এ দিন ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব লিভার অ্যান্ড ডাইজ়েস্টিভ সায়েন্স-চত্বরে নতুন বিল্ডিং 'মন্দির'-এর উদ্বোধনের পাশাপাশি চন্দ্রকান্ত ইনস্টিটিউট অব নার্সিং অ্যান্ড হেলথ সায়েন্সের শিলান্যাসও করেন অভিজিত্‍বাবু। উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্যসচিব নারায়ণস্বরূপ নিগম, চিকিত্‍সক অশোকানন্দ কোনার, অভিজিত্‍ চৌধুরী-সহ অনেকেই। অন্য দিকে, এ দিন প্রেসিডেন্সি প্রাক্তনী সংসদের পক্ষ থেকে অভিজিত্‍বাবুর বাড়িতে গিয়ে তাঁর হাতে 'অতুলচন্দ্র গুপ্ত বিশিষ্ট প্রাক্তনী সম্মান' তুলে দেওয়া হয়। গত বছরেই তাঁকে এই সম্মান জানানোর কথা ছিল। কিন্তু অতিমারির দাপটে গত বছর কোনও অনুষ্ঠান করা যায়নি।