নিম্নচাপ ঘণীভূত হয়ে ফের ঘূর্ণাবর্ত? জেনে নিন আবহাওয়ার পূর্বাভাস

নিম্নচাপ ঘণীভূত হয়ে ফের ঘূর্ণাবর্ত? জেনে নিন আবহাওয়ার পূর্বাভাস

  ইতিমধ্যেই কলকাতা সহ বাংলার বাকি অংশ শীত শীত অনুভূতি তৈরি হয়ে গিয়েছে। কবে জাঁকিয়ে শীত পড়বে, সেই অপেক্ষায় বাঙালি। কিন্তু এরই মধ্যে দুশ্চিন্তার বার্তা দিল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। নিম্নচাপ ইতিমধ্যেই ঘণীভূত হয়েছে ,তা ফের একবার ঘূর্ণিঝড়ে (Cyclonic Storm) পরিণত হতে চলার আশঙ্কা করছে মৌসম ভবন৷ সাম্প্রতিক ওয়েদার আপেডেটে (Weather Update) জানা যাচ্ছে ফের একবার পশ্চিমবঙ্গে বৃষ্টি (Rain) হবে যার জেরে ফের একবার থমকে যাবে শীত৷ 

পশ্চিমবঙ্গের আবহাওয়ার পূর্বাভাসে (West Bengal Weather Update) তাই এখনই জাঁকিয়ে শীত পড়ার সম্ভবনা দেখা যাচ্ছে না৷ ওয়েদার আপডেটে (Weather Update) বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া এই নিম্নচাপের জেরে অন্ধ্রপ্রদেশ, ওড়িশা ও পশ্চিমবঙ্গে ফের বৃষ্টি (Rain) হবে৷ পাশাপাশি ঘণ্টায় ৪০-৬০ কিলোমিটার গতিতে বইবে ঝোড়ো হাওয়া৷ মৌসম ভবনের জারি করা ওয়েদার আপডেট (Weather Update) অনুযায়ি আগামী ৪৮ ঘণ্টায় এই নিম্নচাপ আরও শক্তিশালী হবে এবং ক্রমশ উত্তর ও উত্তর পশ্চিমের দিকে এগোবে৷

সোমবারই সেই ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হবে বলে উপগ্রহ চিত্র মারফৎ জানা গিয়েছে। আর সেই ঘূর্ণাবর্ত থেকেই ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কা তৈরি হয়েও বলেও সতর্ক করেছে আবহাওয়া দফতরের। ফলে ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহেই ওই ঘূর্ণাবর্তের প্রভাব পড়তে পারে অন্ধ্রপ্রদেশ, ওড়িশা এবং পশ্চিমবঙ্গের উপকূলে।৩০ নভেম্বর থেকে ১ ডিসেম্বেরের মধ্যে এই নিম্নচাপের জেরে আন্দামান -নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে বৃষ্টি বাড়বে৷ এখানেই ৪০-৬০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা গতিতে হাওয়া বইবে৷

পাশাপাশি বঙ্গোপসাগরের ওপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ার সময় শক্তিবৃদ্ধি করে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে৷ চেন্নাইতে ২৭ নভেম্বরেও প্রচুর বৃষ্টিপাত হয়েছে৷ ১০ সেমি বৃষ্টি হয়েছে৷ পশ্চিমবঙ্গের ওয়েদার আপেডেটে (West Bengal Weather Update) জানানো হয়েছে আগামী মাসের এক তারিখ অবধি বৃষ্টিপাতের কোনও সম্ভাবনা নেই বাংলায়।

এখনও তেমন শীত না পড়লেও এবার বাংলায় জাঁকিয়ে ঠাণ্ডা পড়তে পারে বলেই জানিয়েছে হাওয়া অফিস। তবে হুহু তাপমাত্রার পারদ এখনই নামবে না৷ কারণ ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহেই পশ্চিমবঙ্গেও এই নিম্নচাপের জেরে বৃষ্টি হবেই মনে করছে আবহাওয়া দফতর৷  কিন্তু কবে থেকে জাঁকিয়ে শীত? আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে, ঘূর্ণাবর্তের কাঁটা কেটে গেলেই জাঁকিয়ে পড়বে শীত। ইতিমধ্যেই তাপমাত্রা ক্রমান্বয়ে নামতে শুরু করেছে। এদিন কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৭.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২৮.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে, সোমবার থেকে নিম্নচাপ অক্ষরেখাটি ক্রমশ শক্তি বাড়াতে শুরু করতে পারে। এরপর পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টায় তা আরও শক্তিশালী হয়ে পশ্চিম ও উত্তর পশ্চিম দিকে এগোতে থাকবে। আর এই নিম্নচাপ অক্ষরেখার কারণেই আগামী ৩০ নভেম্বর ও ১ ডিসেম্বর আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে বিক্ষিপ্ত ভাবে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। তবে, এর প্রভাব পশ্চিমবঙ্গের উপর কতটা পড়বে, তা এখনও স্পষ্ট নয়।